ঢাকা, মঙ্গলবার, ৪ আষাঢ় ১৪২৬, ১৮ জুন ২০১৯
bangla news

ঈদের পরদিন থেকে বগুড়ায় যান চলাচল বন্ধের ঘোষণা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২৩ ৭:০৯:১৪ পিএম
সংবাদ সম্মেলনে সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক যৌথ কমিটির নেতারা। ছবি: বাংলানিউজ

সংবাদ সম্মেলনে সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক যৌথ কমিটির নেতারা। ছবি: বাংলানিউজ

বগুড়া: ঈদের পরদিন থেকে বগুড়ায় বাস-ট্রাকসহ সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন জেলা সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক যৌথ কমিটির নেতারা। বিএনপি নেতা পরিবহন ব্যবসায়ী অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীন হত্যা মামলায় গ্রেফতার বগুড়া মোটর মালিক গ্রুপের নেতা আমিনুল ইসলামকে আইনি সহায়তায় বাধা দেওয়ার অভিযোগে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
 

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) দুপুরে বগুড়া প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বগুড়া জেলা সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক যৌথ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান আকন্দ এ ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, সংবিধান অনুযায়ী আইনি সহায়তা পাওয়া রাষ্ট্রের প্রত্যেক নাগরিকের মৌলিক অধিকার। সে অধিকার থেকে স্থানীয় আইনজীবীরা গ্রেফতার আমিনুল ইসলামকে বঞ্চিত করছেন। অ্যাডভোকেট আবু আসাদ তার পক্ষে শুনানিতে অংশ নিতে চাইলেও কয়েকজন আইনজীবী তাকে মারধর করে আদালত থেকে বের করে দেন।

ঘটনাটি দুঃখজনক উল্লেখ করে বগুড়া জেলা সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক যৌথ কমিটির সাধারণ সম্পাদক বলেন, বগুড়ার আইনজীবীরা যা করছেন তাতে আমরা মর্মাহত। পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা প্রতিনিয়ত আইনজীবীদের এমন আচরণ নিয়ে আমাদের কাছে প্রশ্ন তুলছেন। তাই বিষয়টি নিয়ে আমরা জরুরি সভা করি। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আইনজীবী সমিতি যদি তাদের অন্যায় সিদ্ধান্ত থেকে সরে না আসেন, তাহলে ঈদের পরদিন থেকে বাস, ট্রাক, পিক-আপ, সিএনজি ও প্রাইভেট গাড়ির শ্রমিকসহ আমরা গাড়ি চালাবো না। কোনো শ্রমিক কর্মস্থলে যাবে না।

আব্দুল মান্নান আকন্দ তাদের এ ঘোষণা বাস্তবায়নে জেলা ও পুলিশ প্রশাসনসহ রাজনৈতিক নেতাদের সহযোগিতা কামনা করেন। পরিবহন ব্যবসায় অরাজকতা সৃষ্টি হলে তার দায় জেলা মালিক-শ্রমিক যৌথ কমিটি নেবে না বলেও হুশিয়ারি দেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে জেলা মোটর মালিক গ্রুপের সভাপতি আকতারুজ্জামান ডিউক, মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক শামছুদ্দিন শেখ হেলালসহ সড়ক পরিবহন-মালিক শ্রমিক যৌথ কমিটির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

গত ১৪ এপ্রিল রাতে বগুড়া সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক পরিবহন ব্যবসায়ী অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীনকে শহরের উপ-শহর বাজার এলাকায় হত্যা করা হয়। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে নিহতের স্ত্রী আকতার জাহান শিল্পী ১৬ এপ্রিল বগুড়া মোটর মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলামসহ ১০জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

হত্যাকাণ্ডের পরদিন (১৫ এপ্রিল) অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম শাহীন হত্যাকাণ্ডে জড়িত কোনো আসামিকে বগুড়া জেলা আইনজীবী সমিতির কেউ আইনি সহায়তা দেবে না বলে ঘোষণা দেওয়া হয়। এ সিদ্ধান্তের কারণে অ্যাডভোকেট শাহীন হত্যা মামলায় গ্রেফতার প্রধান আসামি বগুড়া মোটর মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলামকে একাধিকবার আদালতে নেওয়া হলেও কোনো আইনজীবী তার পক্ষে দাঁড়াননি। তাই আমিনুলকে নিজেই নিজের মামলার শুনানি করতে হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৫ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০১৯
এমবিএইচ/একে

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-23 19:09:14