ঢাকা, মঙ্গলবার, ৪ আষাঢ় ১৪২৬, ১৮ জুন ২০১৯
bangla news

র‌্যাবের সঙ্গে সংঘর্ষের জেরে সিলেট-তামাবিল সড়ক অবরোধ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২৩ ৩:০৪:৪৪ পিএম
সিলেট-তামাবিল সড়কে অবস্থান নিয়েছে এলাকাবাসী। ছবি: বাংলানিউজ

সিলেট-তামাবিল সড়কে অবস্থান নিয়েছে এলাকাবাসী। ছবি: বাংলানিউজ

সিলেট: সিলেটে আসামি ধরতে গিয়ে র‌্যাবের সঙ্গে পাচারকারী চক্রের সংঘর্ষ হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ২২ জনকে আটক করেছে র‌্যাব। এ ঘটনার জেরে সিলেট-তামাবিল সড়ক অবরোধ করেছে এলাকাবাসী।
 

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) ভোরে উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের বালিপাড়া গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। ২২ জনকে আটকের সত্যতা নিশ্চিত করেছে র‌্যাব-৯'র মিডিয়া উইং।

স্থানীয় সূত্র জানায়, কিছুদিন ধরে সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার ফতেহপুর সাইট্রাস গবেষণা কেন্দ্রসহ বিভিন্ন সীমান্ত এলাকা দিয়ে ভারতীয় গরুর চালান দেশে আসছিল।

এর প্রেক্ষিতে র‌্যাব সদস্যরা জড়িতদের ধরতে ইউনিয়নের বালিপাড়া ও তীলপাড়া এলাকা অভিযান চালাতে গেলে গরু পাচারকারী চক্রের সদস্যদের বাধার মুখে পড়েন। তারা র‌্যাব সদস্যদের ওপর হামলা চালায়। র‌্যাবও সেখান থেকে ২২ জনকে আটক করে।

এ ঘটনার পর থেকে তীলপাড়া গ্রামবাসী সিলেট-তামাবিল সড়কের বিভিন্ন জায়গায় ব্যারিকেড দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে। এতে প্রায় ১০ কিলোমিটার সড়কে যানজট সৃষ্টি হয়েছে। চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ যাত্রীরা। জরুরি প্রয়োজনে বের হওয়া লোকজন হেঁটেই শহরে আসার চেষ্টা করছেন।

তীলপাড়া গ্রামবাসীর অভিযোগ, র‌্যাবের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়েছে বালিপাড়া গ্রামের লোকজনের। কিন্তু তারা ধরে নিয়ে গেছে তীলপাড়ার মানুষদের। তাই তাদের ছেড়ে দেওয়ার দাবিতে সড়ক অবরোধ করা হয়েছে।

যোগাযোগ করা হলে র‌্যাব-৯ মিডিয়া উইং জানায়, গরু পাচারকারী চক্রের সঙ্গে জড়িত ২২ জনকে আটক করা হয়েছে। আটকদের বিষয়ে প্রেসনোট ইস্যু করা হবে।

অবরোধের কারণে সড়কের দু’পাশে বিশাল যানজট সৃষ্টি হয়েছে। ছবি: বাংলানিউজ

এ বিষয়ে জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান মোহাম্মদ মঈনুল জাকিরের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

জৈন্তাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল আহমদ বাংলানিউজকে বলেন, বৃহস্পতিবার (২৩ মে) ভোরের দিকে বালিপাড়া থেকে লালাখালের এক বাসিন্দাকে ভারতীয় গরুসহ আটক করে র‌্যাব। পথিমধ্যে পাচারকারী চক্রের বেশ কিছু সদস্য র‌্যাবের গাড়ি ব্যারিকেড দিয়ে আটকে আসামি ও গরু ছিনিয়ে নেয়। এ ঘটনার পর র‌্যাব সদস্যরা আবার বালিপাড়া ও তীলপাড়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে ফতেহপুর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানসহ ২২ জনকে ধরে নিয়ে যায়। এর প্রেক্ষিতে এলাকার লোকজন আটক ব্যক্তিদের ছাড়াতে সড়ক অবরোধ করে। বর্তমানে দুই গ্রামের লোকজন সড়কে অবস্থান করছে।

তিনি বলেন, ঘটনাটি জেলা প্রশাসককে জানানো হয়েছে। স্থানীয়দের দাবির প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসক ঘটনাস্থলে প্রতিনিধি পাঠাচ্ছেন।

বিকেল সাড়ে ৩টায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, সিলেট-তামাবিল সড়ক এখনো অবরোধ করে রাখা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫০০ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০১৯
এনইউ/একে

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   র‌্যাব
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-23 15:04:44