ঢাকা, বুধবার, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, ২৬ জুন ২০১৯
bangla news

টিকিটের আশায় ঘুমিয়েই রাত পার তাদের 

তামিম মজিদ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২৩ ৯:২৬:৫৯ এএম
কমলাপুর রেলস্টেশনে অগ্রিম টিকিট প্রত্যাশীরা। ছবি: ডিএইচ বাদল

কমলাপুর রেলস্টেশনে অগ্রিম টিকিট প্রত্যাশীরা। ছবি: ডিএইচ বাদল

ঢাকা: মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর। সেই উৎসবে আপনজনের সঙ্গে আনন্দ ভাগাভাগি করতে রাজধানী ছাড়েন কোটি মানুষ। স্বাচ্ছন্দ্যে ও নিরাপদে বাড়ি ফিরতে রেলপথকে বরাবরই বেছে নেন যাত্রীরা। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। তবে অন্য বছরের মতো কমলাপুরজুড়ে লাখো মানুষের অপেক্ষা না থাকলেও টিকিটের আশায় জেগে-ঘুমিয়ে পার করেছেন অনেক টিকিট প্রত্যাশী। 

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) সকাল ৯টায় দ্বিতীয় দিনের মতো রাজধানীর কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে টিকিট বিক্রি কার্যক্রম শুরু হবে। আজ দেওয়া হবে ১ জুনের টিকিট। 

কিন্তু বুধবার (২২ মে) মধ্য রাত থেকেই বিছানা-বালিশ নিয়ে কমলাপুর এসেছেন অনেক টিকিট প্রত্যাশী। উদ্দেশ্য একটাই, বাড়ি ফেরার টিকিট নিশ্চিত করা। তারা বলছেন, টিকিট পেলেই কষ্ট করা স্বার্থক হবে। মুখে স্বপ্নজয়ের হাসি ফুটবে। 

রাজধানীর একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা তাহারিমা সুলতানা হাসি বুধবার মধ্য রাত থেকেই কমলাপুরে অবস্থান নিয়েছেন। তিনি বলেন, টিকিট পেলেই রাত জেগে কষ্ট করা সফল হবে। 

নিয়াজুল হক নামে আরেক টিকিট প্রত্যাশী বলেন, আমি বিছানা নিয়ে এসেছি। রাত এখানেই কাটিয়েছি। এখন লাইনে আছি। দিনাজপুরের টিকিট কিনতে এসেছি। টিকিট পেলেই কষ্ট করা লাঘব হবে। 

বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার পর থেকে কমলাপুর রেলস্টেশনে ভিড় বাড়ছে। টিকিট প্রত্যাশীরা অবস্থান নিয়েছেন স্টেশনের প্লাটফর্মে। 

বাংলাদেশ সময়: ০৯২২ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০১৯
টিএম/আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ঈদে বাড়ি ফেরা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-23 09:26:59