ঢাকা, বুধবার, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬, ২৬ জুন ২০১৯
bangla news

চেয়ারম্যানের ‘শাসনে’ কাঠমিস্ত্রী হাসপাতালে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২২ ৮:১৫:৪৬ পিএম
নারায়ণগঞ্জ

নারায়ণগঞ্জ

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের নোয়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইউসুফ দেওয়ান মারধর করে কবির হোসেন নামের এক কাঠমিস্ত্রিকে হাসপাতালে পাঠিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। 

বুধবার (২২ মে) বিকেলে জমি সংক্রান্ত বিরোধে পরমেশ্বদী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় কবিরকে মারধর করার পর তাকে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। 

জানা যায়, নোয়াগাঁও ইউনিয়নের মৃত আব্দুল মতিন মোল্লার ছেলে কাঠমিস্ত্রি কবির সরকারি ১ একর ৮ শতাংশ জমি লিজ নিয়ে ভোগদখল করে আসছেন। সম্প্রতি চেয়ারম্যানের কাউসার নামে এক আত্মীয় প্রভাব খাটিয়ে ওই লিজ বাতিল করে তা নিজের নামে নবায়ন করে নেয়। 

ওই লিজকৃত জমিতে একটি পুকুরও রয়েছে। লিজ বাতিলের আগে পুকুরে কাঠমিস্ত্রি কবির হোসেন রুই, কাতলা, তেলাপিয়া, শিং ও কই মাছ চাষ করে। সোনারগাঁ উপজেলা ভূমি কার্যালয় কবির হোসেনের পক্ষে ওই চাষকৃত মাছ ধরার জন্য রায়ও দেয়। বিষয়টি জানতে পারেন চেয়ারম্যান ইউসুফ দেওয়ান। এরপর আনোয়ার মেম্বারের নেতৃত্বে ১০-১৫ জনের একটি দল ওই পুকুর থেকে মাছ ধরে নিয়ে যেতে থাকে। পরে কবির হোসেন সোনারগাঁ থানায় জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মাছ ধরা বন্ধ করে দেয়। এতে কবির হোসেনের ওপর ক্ষিপ্ত হন চেয়ারম্যান। পরে ঘটনাস্থলে এসে কবির হোসেনকে পেয়ে পিটিয়ে আহত করেন ইউসুফ। কবিরের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। 

কবির হোসেনের ছোট ভাই আওলাদ হোসেন বাংলানিউজকে জানান, দীর্ঘদিন ধরে সরকারের কাছ থেকে লিজ নিয়ে আমরা ওই সম্পত্তি ভোগদখল করে আসছি। সম্প্রতি নোয়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইউসুফ দেওয়ানের চোখ পড়ে ওই জমির দিকে। চেয়ারম্যান প্রভাব খাটিয়ে আমাদের লিজ বাতিল করে তার আত্মীয় কাউসারের নামে লিজ নিয়ে নেন। ওই জমির পাশের একটি পুকুরে আমাদের চাষকৃত মাছ ধরে নেওয়ার জন্য প্রশাসন আমাদের পক্ষে রায় দেয়। তাছাড়া আমরা চেয়ারম্যানের লিজ বাতিলের জন্য আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছি। মামলা থাকার পরও চেয়ারম্যানের পোষ্য সন্ত্রাসী আনোয়ার মেম্বারের নেতৃত্বে আমাদের মাছ ধরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। পুলিশ নিয়ে আসার কারণে ক্ষিপ্ত হয়ে চেয়ারম্যান নিজ হাতে আমার ভাইকে পিটিয়ে আহত করে।

এ বিষয়ে নোয়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইউসুফ দেওয়ানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, একটি লিজকৃত জমি নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ চলছে। এ বিবাদ মীমাংসার জন্য একটু ‘শাসন’ করেছি।   

সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, বিষয়টি মৌখিকভাবে শুনেছি। কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেবো। 

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৬ ঘণ্টা, মে ২২, ২০১৯
এইচএ/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-22 20:15:46