bangla news

জামালপুরে বোরো ধান-চাল সংগ্রহ অভিযান শুরু

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২১ ৫:১৪:৩০ পিএম
ধান-চাল বিক্রয় কার্যক্রম শুরু। ছবি: বাংলানিউজ

ধান-চাল বিক্রয় কার্যক্রম শুরু। ছবি: বাংলানিউজ

জামালপুর: জামালপুরের প্রধান খাদ্য গুদাম সিংহজানী খাদ্য গুদামের সংরক্ষণ ও চলাচল কর্মকর্তা ছাড়াই বোরো ধান-চাল সংগ্রহ শুরু হয়েছে। 

সোমবার (২০ মে) অনলাইন নিউজপোর্টাল বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম এ ‘২ কর্মকর্তার রশি টানাটানিতে চাল-ধান সংগ্রহ বন্ধ’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের পর মঙ্গলবার (২১ মে) দুপুরে ওই ২ কর্মকর্তা ছাড়াই ধান-চাল অভিযানের উদ্বোধন করেন স্থানীয় এমপি ইঞ্জিনিয়ার মোজাফ্ফর হোসেন।
 
এ সময় খাদ্য গুদাম ও খাদ্য কর্মকর্তা ছাড়াও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মো. সুরুজ্জামান ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।
 
পরে স্থানীয় এমপি বর্তমান গুদাম সংরক্ষণ কর্মকর্তা জিনাত শামছুন্নাহারকে দ্রুত তার দায়িত্ব হস্তান্তর করে নতুন কর্মস্থলে যোগদানের নির্দেশ দেন।
 
চলতি মৌসুমে জেলায় ৩৬ হাজার ৫৫৫ মেট্রিক টন চাল ও ৩ হাজার ৮৮৭  মেট্রিক টন ধান ক্রয় করবে সরকার। এর মধ্যে ৩৩ হাজার ১০৪ মেট্রিক টন সেদ্ধ এবং ৩ হাজার ৪৫১ মেট্রিক টন আতপ। সরকারিভাবে প্রতি কেজি চাল ৩৬ টাকা এবং প্রতি কেজি ধানের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ২৬ টাকা।
 
সিংহজানী খাদ্য গুদামের সংরক্ষণ ও চলাচল কর্মকর্তা জিনাত শামছুন্নাহার সুলতানাকে গত ১৩ মে তারিখে খাদ্য অধিদপ্তরের ৮৫৮ নম্বর বদলির আদেশে কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলার খাদ্য কর্মকর্তা হিসেবে বদলি করা হয়। একইসঙ্গে ঈশ্বরদী এলএসডি (১ম শ্রেণি), পাবনা'র সংরক্ষণ ও চলাচল কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান খানকে সিংহজানী খাদ্য গুদামের সংরক্ষণ ও চলাচল কর্মকর্তা হিসেবে বদলি করা হয়।

১৯ মে রোববার সকাল ১০টায় আসাদুজ্জামান কর্মস্থলে যোগদান করেন ও বেলা ১১টায় তিনি চার্জ গ্রহণ করার জন্য জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক জনাব মাহবুবুর রহমান খানসহ জামালপুরের সিংহজানী খাদ্য গুদামে আসেন। এ সময় জিনাত শামছুন্নাহার সুলতানা দায়িত্ব হস্তান্তর না করে কর্মস্থলে অনুপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, জিনাত শামছুন্নাহার সুলতানা বদলির এই আদেশ অনুসারে দায়িত্ব হস্তান্তরে গড়িমসি করছেন। তিনি আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত বর্তমান কর্মস্থলেই থাকতে চান।
ধান চাষি ও রাইস মিল মালিকদের অভিযোগ জিনাত শামছুন্নাহার সুলতানার কারণে চলতি বোরো মৌসুমের ধান, গম ও চাল সংগ্রহ কার্যক্রম শুরু করা যাচ্ছে না এবং এতে মিল মালিকরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন।
এর আগে দুই বার বোরে সংগ্রহ কার্যক্রমের তারিখ নির্ধারণ হওয়ার পরও তা পরিবর্তন করা হয়েছে শুধুমাত্র জিনাত শামছুন্নাহার সুলতানার দায়িত্ব হস্তান্তরের গড়মসির কারণে।-- 

বাংলাদেশ সময়: ১৭১০ ঘণ্টা, মে ২১, ২০১৯
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চাল জামালপুর
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-21 17:14:30