bangla news

সড়কের মাঝখানে বিদ্যুতের খুঁটি রেখেই চলছে নির্মাণকাজ!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-১৯ ৪:০৯:৫৯ পিএম
গাছুয়া ইউনিয়নে সড়কের মাঝখানে বিদ্যুতের খুঁটি রেখে চলছে নির্মাণ কাজ

গাছুয়া ইউনিয়নে সড়কের মাঝখানে বিদ্যুতের খুঁটি রেখে চলছে নির্মাণ কাজ

বরিশাল: সড়কের মাঝখানে বিদ্যুতের খুঁটি রেখে পাকা সড়ক নির্মাণ নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে দেশজুড়ে। দেশের বিভিন্ন স্থানে এ ধরনের ঘটনার খবর গণমাধ্যমে প্রকাশ পেলেও থামছে না এ ঝুঁকিপূর্ণ কাজ। মারাত্মক দুর্ঘটনার আশঙ্কা নিয়েই এবার বরিশালের মুলাদী উপজেলার গাছুয়া ইউনিয়নে সড়কের মাঝখানে বিদ্যুতের খুঁটি রেখে চলছে নির্মাণ কাজ।

স্থানীয়রা জানান, গাছুয়া ইউনিয়নের নতুন বাজার থেকে চরডুমুরিতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত চলছে সড়কের কাজ। সড়কের চরধলেশ্বর এলাকায় রাস্তার মাঝখানে তিনটি বিদ্যুতের খুঁটি রয়েছে। 

এলাকাবাসীর পক্ষে পল্লী বিদ্যুতের খুঁটি অপসারণের জন্য মুলাদী পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে আবেদন করলেও খুঁটি অপসারণ না করেই সড়ক পাকা করণের কাজ চলমান। ফলে সড়কে যাতায়াতকারী যানবাহন দুর্ঘটনার শিকার হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এলাকাবাসী সড়কের নিরাপত্তার জন্য অবিলম্বে বিদ্যুতের খুঁটিগুলো অপসারণ করে সড়ক পাকাকরণের কাজ করার দাবি তুলেছেন।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সড়কের ঠিকাদার মনিরুল হাসান বাংলানিউজকে জানান, সড়কের মাঝখানের বিদ্যুতের খুঁটি অপসারণের জন্য স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান উপজেলা এলজিইডি অফিসের কর্মকর্তাদের একাধিকবার অনুরোধ করা সত্ত্বেও কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। তাই বাধ্য হয়ে তিনি নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে রাস্তার নির্মাণ কাজ শেষ করতে সড়কে খুঁটি রেখেই নির্মাণ কাজ অব্যাহত রেখেছেন।

উপজেলা এলজিইডি অফিস সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের অধীনে বিডিআরআইডিপি প্রকল্পের আওতায় গত ফেব্রুয়ারি মাসে সড়কের নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়। 

উপজেলা প্রকৌশলী প্রবীর কুমার পাল জানান, নির্মাণাধীন রাস্তার মাঝখানের খুঁটি অপসারণের জন্য পল্লী বিদ্যুৎ মুলাদী জোনাল অফিসের ডিজিএমকে জানানো হয়েছে। এসময় তাকে উচ্চ আদালতের আদেশের কথাও বলা হয়েছে। তারপরেও তারা খুঁটি অপসারনের কোনো কার্যকরী ব্যবস্থা নেয়নি। 

এ বিষয়ে মুলাদী পল্লী বিদ্যুতের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার রেজায়েত আলী বাংলানিউজকে বলেন, রাস্তার মাঝ থেকে তিনটি খুঁটি অপসারণের জন্য ইউপি চেয়ারম্যানের লিখিত আবেদন পেয়ে তা বরিশাল অফিসের জেনারেল ম্যানেজারের কাছে পাঠানো হয়েছে। তার নির্দেশনা পেলেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৫ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০১৯
এমএস/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2019-05-19 16:09:59