ঢাকা, সোমবার, ৪ আষাঢ় ১৪২৬, ১৭ জুন ২০১৯
bangla news

‘আর্মি সোসাইটি’র ব্যাপারে আইএসপিআরের সতর্কবার্তা

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-১৮ ৮:৩৯:৪০ পিএম
আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর)

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর)

ঢাকা: সেনাবাহিনীর নাম ব্যবহার করে বিভিন্ন অবৈধ আবাসন প্রকল্পের যে বিজ্ঞাপন গণমাধ্যমে প্রচারিত হচ্ছে, সে সম্পর্কে সবাইকে সতর্ক করেছে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর)।
 
 

শনিবার (১৮ মে) আইএসপিআর কর্মকর্তা মুহাম্মদ শাহাদাৎ হোসেন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “সম্প্রতি ঢাকার উত্তরার মৌশাইর, চালাবন, শাহকবির মাজার রোড, দক্ষিণ খান এলাকায় অবস্থিত ‘আর্মি সোসাইটি’তে ফ্ল্যাট বিক্রয়’ শিরোনামে কয়েকটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় বিজ্ঞাপনের বিষয়ে সেনা কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষিত হয়েছে। ওই ‘আর্মি সোসাইটি’ নামক এলাকাটি সেনাবাহিনী বা প্রতিরক্ষা বাহিনীর আবাসিক এলাকা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত/স্বীকৃত নয়।”
 
“বর্ণিত সংস্থার নামটি কোনো সরকারি নথিতে (রেজিস্টার অব জয়েন্ট স্টক কোম্পানি অ্যান্ড ফার্মস) লিপিবদ্ধ নেই। মূলত এলাকাটি আগে থেকেই সেনাবাহিনীর বিভিন্ন প্রশিক্ষণের জন্য ব্যবহার করা হতো বিধায় স্থানীয় জনসাধারণের কাছে ‘আর্মি টেক’ নামে পরিচিতি লাভ করে। অনুমানিক ২০-২৫ বৎসর আগে কতিপয় ব্যক্তি নিজেদের উদ্যেগে যৌথভাবে ‘আর্মি সোসাইটি হাউজ ও নার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন’ নামে একটি সমিতি গঠন করে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে এলাকাটি ‘আর্মি সোসাইটি’ নামে পরিচিতি লাভ করে। বর্তমানে কথিত ‘আর্মি সোসাইটি’ এলাকায় প্রায় ১৫০ এর অধিক বাড়ি/প্লট রয়েছে। ওই এলাকায় বিভিন্ন ডেভেলপার কোম্পানির কিছু বহুতল ভবন নির্মাণের কাজ চলছে। ওই আবাসিক এলাকায় জমি/ফ্ল্যাটের মূল্যে পাশ্ববর্তী অন্যান্য আবাসিক এলাকার তুলনায় বেশি বলে জানা গেছে।"
 
কতিপয় ব্যক্তিবর্গের নিজস্ব উদ্যোগে জমি ক্রয়পূর্বক ‘‌আর্মি’ নাম ব্যবহার করে এলাকার নামকরণ ‘আর্মি সোসাইটি’ করা যুক্তিযুক্ত নয় উল্লেখ করে বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, “আর্মি সোসাইটি নামটি পুঁজি করি কতিপয় ব্যক্তি/ডেভেলপার কোম্পানি কর্তৃক বর্ণিত জমি/ফ্ল্যাট পার্শ্ববর্তী এলাকার চেয়ে বেশি দামে বিক্রির মাধ্যমে বেসামরিক পরিমণ্ডলে সেনাবাহিনীর সুনাম ও মর্যাদা ক্ষুন্ন করেছে। এহেন অপতৎপরতা জরুরি ভিত্তিতে বন্ধ করা আবশ্যক।”

বাংলাদেশ সময়: ২০৩০ ঘণ্টা, মে ১৮, ২০১৯
আরএম/এইচএ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-18 20:39:40