ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৩ মে ২০১৯
bangla news

ডোমারে ঘূর্ণিঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ব্যাপক ক্ষতি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-১৮ ৪:৪৯:৩২ এএম
ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি

ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি

নীলফামারী: নীলফামারীর ডোমার উপজেলায় ঘূর্ণিঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ঘড়-বাড়ি, গাছপালা, পাট, পাকা ধানসহ আম ও লিচুর ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

শুক্রবার (১৭ মে) প্রথমে শিলাবৃষ্টি তারপর প্রচণ্ড বেগে পৌর শহরের উপর দিয়ে ঘূর্ণিঝড় বয়ে যায়।
 
বিভিন্ন এলাকায় বিচ্ছিন্নভাবে ক্ষয়ক্ষতি হলেও বেশি ক্ষতি হয়েছে ডোমার পৌরসভা এলাকায়। এ এলাকায় বেশ কিছু ঘর ভেঙে পড়েছে ও টিনের চালা উড়ে গেছে। অসংখ্য গাছপালা উপড়ে পড়েছে। সব চেয়ে শিলাবৃষ্টিতে বেশি ক্ষতি হয়েছে পাট, পাকা ধান, মরিচ, আম, কাঁঠাল ও  লিচুর। এছাড়াও কয়েকটি বিদ্যুতের খুঁটিসহ গাছ-পালা তারের উপর পড়ায় দিনব্যাপী বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন থাকে। 
 
বিদ্যুৎ বিভাগের নির্বাহী  প্রকৌশলী ইউসুফ আলী বলেন, বিদ্যুৎ সংযোগ চালু করতে কাজ করা হচ্ছে। উপজেলায় প্রায় তিন হাজার ৫৬০ জন গ্রাহকসহ অসংখ্য দোকানপাট ও কল করাখানা বন্ধ রয়েছে। আশাকরি, দ্রুত সংযোগ চালু করা সম্ভব হবে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ জাফর ইকবাল জানান, চলতি বোরো মৌসুমে কৃষকের পাকা ধানের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ক্ষেতে থাকা ধান ও বিভিন্ন ফল ঝড়ে গেছে। ক্ষতির তালিকা করা হচ্ছে। এবার ডোমারে মোট ৯৩০ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের চাষ হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উম্মে ফাতিমা জানান, ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর তালিকা করে ঢেউটিন ও নগদ অর্থ সহায়তা দেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ০৪৪৯ ঘণ্টা, মে ১৮, ২০১৯
জেআইএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-18 04:49:32