ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৩ মে ২০১৯
bangla news

মহিপুর থানা হাজতে মাদক কারবারির আত্মহত্যা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-১৬ ২:৩৭:০৯ পিএম
ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

পটুয়াখালী: কলাপাড়া উপজেলার মহিপুরে ইয়াবাসহ আটকের পরে থানা হাজতে ওমর ফারুক ওরফে রায়হান (২০) নামে এক মাদক কারবারি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

বুধবার (১৬ মে) রাত পৌনে ১২টার দিকে মহিপুর থানা হাজতের টয়লেটের (শৌচাগার) ভেন্টিলেটরের লোহার রডের সঙ্গে লুঙ্গি পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এরআগে বুধবার রাত পৌনে ১০টার দিকে কুয়াকাটা চৌরাস্তা থেকে ১৩ পিস ইয়াবাসহ রায়হানকে আটক করা হয়। নিহত রায়হান ব‌রিশালের ইমন পরিবহনের স্টাফ ছিলেন। তার বাড়ি বরিশালের বাখেরগঞ্জ উপজেলার তবিটকাঠী গ্রামের রশিদ মাস্টারের বাড়ি।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইদুল ইসলাম বাংলানিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে ওসি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে রায়হান মাদকাসক্ত ছিলেন। এ কারণে তাকে মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্রে নিরাপদ হেফাজতে রাখা হয়েছিল। তার বাবা নেই। ছেলের মাদক মামলা নিষ্পত্তির জন্য মা সব জমি বিক্রি করে হাইকোর্ট থেকে জামিন করিয়ে আনেন। এরমধ্যে বুধবার রাতে আবারও ইয়াবাসহ ধরা পড়েন রায়হার। ধারণা করা হচ্ছে বিষণ্ণতা থেকে এ আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।

রায়হানের নামে নলছিটি দু’টি, বাকেরগঞ্জ থানায় একটি ও মহিপুর থানায় একটি মাদক মামলা রয়েছে। ময়না-তদন্তের জন্য পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ময়না-তদন্ত প্রতিবেদন হাতে পেলে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয় হবে বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩৬ ঘণ্টা, মে ১৬, ২০১৯
জিপি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   আত্মহত্যা পটুয়াখালী
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2019-05-16 14:37:09