ঢাকা, সোমবার, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৩ আগস্ট ২০২০, ১২ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

বাগেরহাটে হাসপাতালে প্রতিবন্ধী শিশুটি কার?

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-০৬ ১২:৪৯:৩৩ এএম
বাগেরহাটে হাসপাতালে প্রতিবন্ধী শিশুটি কার? প্রতিবন্ধী শিশুটি। ছবি: বাংলানিউজ

বাগেরহাট: বাগেরহাট সদর হাসপাতালের বেডে শুয়ে কাতরাচ্ছে অজ্ঞাতপরিচয় (১৩) প্রতিবন্ধী একটি শিশু। ১০ দিন পার হয়ে গেলেও বাবা-মা বা কোনো আত্মীয়-স্বজন তার খোঁজ নিতে আসেনি। 

কথা বলতে না পারা কঙ্কালসার শিশুটি ২৫ এপ্রিল রাত থেকে সদর হাসপাতালের কার্ডিয়াক বিভাগের ৬ নম্বর বেডে রয়েছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ২৫ এপ্রিল রাতে সুন্দরঘোনা গ্রামের এমএম আহসান আলী নামের এক ব্যক্তি শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়।

তারপর থেকে এখানে ভর্তি আছে। চিকিৎসকরাও আন্তরিকতার সঙ্গে তার চিকিৎসা দিচ্ছেন। কথা বলতে না পারায় এবং কোনো অভিভাবক না থাকায় ওর সম্পর্কে তেমন কিছু জানা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

রোববার (৫ মে) বিকেলে হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়- কঙ্কালসার শিশুটির শরীরে স্যালাইন চলছে। পাশের শয্যার রোগীর স্বজনরা ওকে গোসল করিয়েছে এবং কিছু কিছু নরম খাবার খাওয়ানোর চেষ্টা করেছেন।

এমএম আহসান আলী বলেন, ২৫ এপ্রিল রাতে খানজাহান আলীর (রহ.) মাজারের ভেতরের পূর্বপাশের ছোট একটি রাস্তার পাশে চকির উপর শিশুটিকে দেখতে পাই। অনেক লোক শিশুটিকে ঘিরে ছিল। ঘটনাস্থলে অনেক লোক থাকলেও প্রতিবন্ধী শিশুটির দায়িত্ব কেউ নিতে চায়নি। পরে আমি উপস্থিত সবার সম্মতিতে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে নিয়ে আসি, এখানে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে দেই। তারপর থেকে নিয়মিত খোঁজ খবর নিচ্ছি।

বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহতাব উদ্দিন বলেন, সদর হাসপাতালে অজ্ঞাত শিশুটির বিষয়ে জানার পর থেকে বিভিন্নভাবে খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। সবাই মিলে ওর অভিভাবকদের খোঁজার চেষ্টা করা হচ্ছে। এছাড়া কেউ যদি শিশুটির পরিচয় জানেন তাকে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।
 
বাংলাদেশ সময়: ২০৪৪  ঘণ্টা, মে ০৫, ২০১৯
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa