ঢাকা, রবিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৬ মে ২০১৯
bangla news

পাকিস্তানি কিশোরী ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি গ্রেফতার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-২৩ ৫:৫০:৪৫ পিএম
র‍্যাবের হাতে আটক অভিযুক্ত আল-আমিন

র‍্যাবের হাতে আটক অভিযুক্ত আল-আমিন

সিরাজগঞ্জ: টাঙ্গাইলের গোপালপুরে পাকিস্তানি এক কিশোরী ধর্ষণ মামলার এজাহারভুক্ত প্রধান আসামি আল-আমিনকে (২০) গ্রেফতার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সদস্যরা।

মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) সকালে কুড়িগ্রাম জেলার রাজিবপুর থানার পঞ্চনগর গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। অভিযুক্ত আল-আমিন টাঙ্গাইল জেলার গোপালপুর এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে।

বিকেলে সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার চড়ি এলাকায় র‌্যাব-১২ এর সদর দফতরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান র‌্যাব-১২ এর অধিনায়ক আব্দুল্লাহ আল মোমেন।

তিনি বলেন, গোপালপুর এলাকার বাংলাদেশি এক নাগরিক চাকরির সুবাদে পাকিস্তানে বসবাস করেন। প্রায় ২০ বছর আগে তিনি পাকিস্তানের এক মেয়েকে বিয়ে করে সেখানকার নাগরিক হয়ে যান। তাদের সংসারে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। গত ৫ মাস আগে তাদের মেয়ে পিতৃভূমি দেখতে তার মাকে সঙ্গে নিয়ে গোপালপুরে চাচার বাড়িতে বেড়াতে আসে।

সেখানে অবস্থানকালে ওই কিশোরীর অপর চাচার ছেলে আল-আমিন তাকে উত্যক্ত ও কু-প্রস্তাব দিতে থাকে। এরই একপর্যায়ে গত ১৬ এপ্রিল রাত সাড়ে ৯টার দিকে কিশোরীকে একা পেয়ে অন্যান্য সহযোগীদের সহায়তায় অপহরণ করে মোটরসাইকেলে করে নিয়ে যায়। 

পরদিন ১৭ এপ্রিল ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ি থানার মহিষাকান্দি এলাকায় ফেলে রেখে যায়। এ ঘটনায় ভিকটিমের মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব সদস্যরাও আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান শুরু করে।
    
এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার সকালে কুড়িগ্রামের রাজিবপুর থানার পঞ্চনগর গ্রামে অভিযান চালিয়ে মামলার প্রধান আসামি আল-আমিনকে গ্রেফতার করে বলেও জানান র‌্যাব-১২ এর অধিনায়ক আব্দুল্লাহ আল মোমেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৩, ২০১৯
জিপি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ধর্ষণ গ্রেফতার সিরাজগঞ্জ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-04-23 17:50:45