ঢাকা, সোমবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৭ মে ২০১৯
bangla news

বাংলাদেশ বিশ্বে মানবতার উৎকৃষ্ট উদাহরণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-১৯ ৬:০০:৩৩ পিএম
বক্তব্য দিচ্ছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন, ছবি: বাংলানিউজ

বক্তব্য দিচ্ছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন, ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: বাংলাদেশ সারা বিশ্বে মানবতার উৎকৃষ্ট উদাহরণ বলে উল্লেখ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন।

তিনি বলেছেন, ১০ লক্ষাধিক রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়েছে বাংলাদেশ। শুধু যে এ জন্যই বাংলাদেশ মানবতার বড় উদাহরণ সৃষ্টি করেছে, তা নয়। আমেরিকা যখন আবিষ্কার হয়নি, তখনই আমাদের দেশের মধ্য যুগের একজন বাঙালি কবি চণ্ডীদাস লিখেছিলেন, ‘সবার উপরে মানুষ সত্য, তাহার উপরে নাই’। আজ সত্যি সত্যি বাংলাদেশ মানবতার দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করতে পেরেছে।

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানীর হোটেল রেডিসনের হল রুমে লায়নস ইন্টারন্যাশনাল ক্লাবের ২৩তম বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

নিজেকে অনেক ভাগ্যবান উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমি অত্যন্ত ভাগ্যবান, আমি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু যখন সরকারে ছিলেন না তখন এবং যখন সরকার গঠন করলেন তখনও আমি তার সরকারের সঙ্গে কাজ করতে পেরেছি। এরপর যখন সামরিক সরকার ক্ষমতা গ্রহণ করলো, তখন আমার চাকরি চলে গেলো।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা আমাকে বিদেশ থেকে ডেকে এনে তার সরকারে কাজ করার সুযোগ করে দিয়েছেন। আমাকে সংসদ সদস্য বানিয়েছে। আমাকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব দিয়েছেন। তার প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। আমি খুব ভাগ্যবান- আমি মুক্তিযুদ্ধ দেখেছি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার অনেক অনেক কাজ করছে দেশের মানুষের কল্যাণে। কিন্তু সরকারের একার পক্ষে সব কাজ করা সম্ভব না। সেখানে আপনারা (লায়নস ক্লাব) সরকারের সহায়ক হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন। এ জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। সারাদেশে অনেকগুলো কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে যাচ্ছে সরকার। পাশাপাশি আপনারাও কাজ করছেন। জাতির পিতার স্বপ্ন ছিল সোনার বাংলাদেশ গড়ার। সোনার বাংলাদেশ বলতে উন্নত সমৃদ্ধশালী একটি দেশ। যেখানে সব নাগরিকের সমান অধিকার সুযোগ-সুবিধা অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা, চিকিৎসা নিশ্চিত হবে। এ জন্য সরকারি-বেসরকারি সবার একসঙ্গে মিলে কাজ করতে হবে। তাহলেই আমরা আমাদের কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছতে পারবো।

বাংলাদেশের সময়: ১৮০০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৯, ২০১৯
আরকেআর/টিএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বাংলাদেশ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-04-19 18:00:33