ঢাকা, শনিবার, ৮ ভাদ্র ১৪২৬, ২৪ আগস্ট ২০১৯
bangla news

সুদের টাকা দিতে না পেরে সবজি বিক্রেতার আত্মহত্যা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-১৯ ৫:৫৫:৩৬ পিএম
নিহত সুব্রত প্রামাণিকের পরিবার

নিহত সুব্রত প্রামাণিকের পরিবার

মাগুরা: মাগুরা সদর উপজেলার রামাদারগাতি গ্রামে মহাজনী সুদের টাকা না দিতে পেরে সুব্রত প্রামাণিক (৩৬) নামে এক সবজি বিক্রেতার আত্মহত্যা করেছেন। এ ঘটনায় নায়েব আলী (৪৫) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) রাতে গোয়ালবাথান এলাকা থেকে ওই সুদ কারবারিকে আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। 

আটক নায়েব আলী এলাকায় একজন সুদ কারবারি হিসেবে পরিচিত। নিহতের স্ত্রী পূর্ণিমা প্রামাণিক এ ঘটনায় জন্য নায়েব আলীকে দায়ী করে মাগুরা সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) গোয়ালবাথান গ্রামে গিয়ে জানা যায়, নায়েব আলীর কাছ থেকে বিভিন্ন সময়ে ৩০ হাজার টাকা ধার নেন সুব্রত। যার বিপরীতে প্রতি সপ্তাহে তিন হাজার টাকা সুদ দিতে হতো তাকে। গত কয়েক সপ্তাহে সুদের টাকা দিতে না পারায় সুব্রতের কাছ থেকে বসতভিটা লিখে নেন নায়েব আলী। পাশাপাশি আরও তিন লক্ষাধিক টাকা পাওনা রয়েছেন বলে তিনি দাবি করেন। 

এ টাকা আদায়ের জন্য নায়েয় সুব্রতকে চাপ দিতে থাকেন। একপর্যায়ে বৃহস্পতিবার সকালে সুব্রতের কাছে থাকা বাজারে বিক্রির জন্য সবজি কেনার নগদ ৩৭ হাজার টাকা কেড়ে নেয় নায়েব। শেষ সম্বল হিসেবে ওই টাকা কেড়ে নেওয়ার দিশেহারা হয়ে কীটনাশক পান করলে দুপুরে স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মারা যান সুব্রত।

মাগুরা সদর উপজেলার গোপাল গ্রাম ইউনিয়নের সাবেক মেম্বর সায়াম উদ্দিন বাংলানিউজকে জানান, নায়েব আলীর সুদের ফাঁদে পড়ে সঞ্জয় দাস, সনজিৎ দাস, বাবলু মোল্যা, বাদল মোল্যা, উজ্জ্বল সরদার, শরিফুল ইসলাম, ডাবলু মোল্যাসহ রামাদারগাতি ও গোয়ালবাথান এলাকার অন্তত ৩০ জন গত পাঁচ বছরে বসতবাড়িসহ সর্বস্ব হারিয়ে অন্যত্র চলে গেছেন। সুদ কারবারির নায়েব আলীর দৃষ্টান্তমূলক দাবি করেন তিনিসহ এলাকার লোকজন।

মাগুরা পুলিশ সুপার (এসপি) খান মহম্মদ রেজওয়ান আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে বলেন, নিহত সুব্রতের স্ত্রী থানায় লিখিতভাবে অভিযোগ দিয়েছেন। ময়না-তদন্ত শেষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এরইমধ্যে সুদ কারবারি নায়েব আলীকে আটক করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৯, ২০১৯
জিপি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   আত্মহত্যা মাগুরা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-04-19 17:55:36