ঢাকা, শনিবার, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬, ২০ জুলাই ২০১৯
bangla news

‘ভেতরে চিৎকার শুনি, পরে তালা ভেঙে ২ ছাত্রকে বের করি’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-১৮ ৪:৩৯:৫৫ পিএম
আগুন নেভানোর পর মাদ্রাসার ভেতরে নিজেদের কক্ষে মালামাল খুঁজতে যান শিক্ষার্থীরা। ছবি: ডিএইচ বাদল

আগুন নেভানোর পর মাদ্রাসার ভেতরে নিজেদের কক্ষে মালামাল খুঁজতে যান শিক্ষার্থীরা। ছবি: ডিএইচ বাদল

ঢাকা: ‘আমরা ফায়ারকর্মীরা আগুন নেভানোর চেষ্টার পাশাপাশি ভবনের ওপরের দিকে উঠে গিয়ে বেশ কয়েকজনকে উদ্ধার করি। ভবনের পাঁচতলায় গিয়ে দেখি- একটি কক্ষে এর বাইরের দিক থেকে তালাবদ্ধ। কিন্তু ভেতর থেকে চিৎকার শোনা যাচ্ছে। তখন ওই তালা ভেঙে ভেতরে আটকে থাকা দুই ছাত্রকে উদ্ধার করে বেরিয়ে আসি।’

বুধবার (১৭ এপ্রিল) দিনগত রাতে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর কাজলার কুতুবখালী এলাকার একটি মাদ্রাসায় অগ্নিকাণ্ডের সময় দমকলকর্মীদের উদ্ধার তৎপরতার কথা এভাবেই বলছিলেন ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের পোস্তগোলা স্টেশনের লিডার মোহাম্মদ সেলিম রেজা।

রাত ১২টা ৫ মিনিটে আগুন লাগার পর ফায়ার সার্ভিসের ৯টি ইউনিটের প্রচেষ্টায় ১ ঘণ্টা ২০ মিনিট পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ওই ভবনটিকে ‘অগ্নি ঝুঁকিপূর্ণ’ বলে ঘোষণা করেছে ফায়ার সার্ভিস।অগ্নিকাণ্ডে ভবনের ভেতরে পুড়ে যাওয়া মালামাল। ছবি: ডিএইচ বাদলবৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) মোহাম্মদ সেলিম রেজা বাংলানিউজকে জানান, সকালে আমরা ওই ভবনটি ‘অগ্নি ঝুঁকিপূর্ণ’ ঘোষণা করে একটি ব্যানার টাঙিয়ে দিয়েছি। এর কারণ হচ্ছে ওই ভবনের ৫, ৬ ও ৭ তলায় পরিচালিত মাদ্রাসার নিচতলায় টিভির মেরামতের মালামালের গোডাউনসহ আরও কয়েকটি গোডাউন আছে। পুরো ভবনটি ‘অগ্নি ঝুঁকিপূর্ণ’ ছিল এবং অগ্নিনির্বাপণের কোনো ব্যবস্থাও ছিল না। আবারও যেকোনো সময় অগ্নিকাণ্ড ঘটে যেতে পারে। 

আগুন নেভানোর তৎপরতা নিয়ে তিনি বলেন, ভবনটির নিচতলায় যখন আগুন লাগে আমাদের ফায়ার সার্ভিসের নয়টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার কাজ শুরু করে। সে সময় আমাদের কাছে সংবাদ আসে, ওপরে প্রায় ৫০ জন আটকে পড়েছে। একদিক দিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা চলে, অন্যদিকে আমরা ফায়ারের সদস্যরা ওপরের দিকে উঠে গিয়ে বেশ কয়েকজনকে উদ্ধার করি। ভবনের পাঁচ তলায় গিয়ে দেখি- একটি কক্ষে এর বাইরের দিক থেকে তালাবদ্ধ। কিন্তু ভেতর থেকে চিৎকার শোনা যাচ্ছে। তখন ওই তালা ভেঙে ভেতরে আটকে থাকা দুই ছাত্রকে উদ্ধার করে বেরিয়ে আসি।

কিছুক্ষণ দেরি হলেই অনেক বড় দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারতো উল্লেখ করে সেলিম রেজা বলেন, হয়তো আগুন লাগার সময় ভুলবশত কেউ দরজা তালা দিয়ে দ্রুত চলে গেছে। তারা হয়তো বুঝতে পারেনি যে ভেতর দু’জন ছাত্র রয়ে গেছে।সকালে ওই ভবনকে ‘অগ্নি ঝুঁকিপূর্ণ’ ঘোষণা দিয়ে ব্যানার টাঙিয়ে দেওয়া হয়। ছবি: ডিএইচ বাদলফায়ার সার্ভিসের এই কর্মকর্তা জানান, অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ তদন্তসাপেক্ষে জানা যাবে। তবে ধারণা করা হচ্ছে ওই ভবনের নিচতলায় টিভি মেরামতের গোডাউন থেকে বৈদ্যুতিক গোলযোগের কারণে আগুনের সূত্রপাত হয়ে থাকতে পারে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৮, ২০১৯
এজেডএস/এইচএ/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   অগ্নিকাণ্ড
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-04-18 16:39:55