ঢাকা, বুধবার, ১১ বৈশাখ ১৪২৬, ২৪ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

নুসরাত ইস্যুতে ডাকসু নেতারা চুপ থাকায় ব্যথিত তোফায়েল

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-১৫ ৯:০৫:০৭ পিএম
'অভিজ্ঞতা শুনি সমৃদ্ধ হই' শীর্ষক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন তোফায়েল আহমেদ/ছবি: বাংলানিউজ

'অভিজ্ঞতা শুনি সমৃদ্ধ হই' শীর্ষক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন তোফায়েল আহমেদ/ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হল থেকে অছাত্রদের বের করে দেওয়ার জন্য প্রশাসন ও ডাকসু নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ভবনে ডাকসু ও হল সংসদের নির্বাচিতদের নিয়ে 'অভিজ্ঞতা শুনি সমৃদ্ধ হই' শীর্ষক অনুষ্ঠানে তিনি এ আহ্বান জানান।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আন্তর্জাতিক ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের সংখ্যাতিরিক্ত অধ্যাপক ড. খন্দকার বজলুল হক ও ডাকসুর সাবেক জিএস ড. মোশতাক হোসেন।

নির্বাচিতদের নিয়ে ডাকসুর সাবেক ভিপি তোফায়েল আহমেদ বলেন, নুসরাতকে হত্যা করা হয়েছে কিন্তু এটা নিয়ে আমি ডাকসুর কোনো নেতাকে আন্দোলন করতে দেখিনি। তোমাদের এই আচরণ আমাকে একটু ব্যথিত করেছে এবং আহতও করেছে। মনে রাখবে তোমরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের প্রতিনিধি নয়, সব ছাত্রের প্রতিনিধি হিসেবে আপনারা কাজ করবে।

তিনি বলেন, আমার যখন ছাত্রত্ব শেষ হয়ে যায় সঙ্গে সঙ্গে আমি হল ছেড়ে দেই। আমার ছাত্রত্ব শেষ হওয়ার পর আমি একদিনও হলে থাকিনি। তাই আমি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও ডাকসুর নেতাদের কাছে আহ্বান জানাই তারা যেন হলে থাকা সব অছাত্র বের করে করে দেয়।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয়কে কীভাবে সুন্দরভাবে পরিচালনা করা যায় তার জন্য বঙ্গবন্ধু আগেই ১৯৭৩ সালে বিশ্ববিদ্যালয় অ্যাক্ট জারি করে গেছেন। তিয়াত্তরের অ্যাক্ট অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালিত হচ্ছে। এটি যদি আমারা সঠিকভাবে ব্যবহার করতে পারি তাহলে এই বিশ্ববিদ্যালয় ভালোভাবে চলবে বলে আশা করি। 

অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের ২৫ জন ও হল সংসদের নির্বাচিত ২৩৪ জন ছাত্র প্রতিনিধি এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন আবাসিক হলের প্রাধ্যক্ষ ও সিন্ডিকেটের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১০১ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৫, ২০১৯
এসকেবি/এএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ডাকসু
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14