ঢাকা, বুধবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৪ জুলাই ২০১৯
bangla news

বসুন্ধরা গ্রুপের সহযোগিতায় সুস্থ জীবন পেলো শাহানা

মাসুদ আজীম, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-১৫ ৪:৪৫:৫৮ পিএম
শাহানা আক্তার

শাহানা আক্তার

ঢাকা:  বছরখানেক আগে বুকে ব্যথা, মাথা ব্যথাসহ বিভিন্ন কারণে হঠাৎ করেই অসুস্থ হয়ে পড়েন খুলনার সরকারি পাইওনিয়ার কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী শাহানা আক্তার। এরপর তাকে হাসপাতালে নেওয়ার পর জানা গেলো তার হৃদপিণ্ডের একটি ভাল্ভ নষ্ট হয়ে গেছে। তার অপারেশনে প্রয়োজন প্রায় তিন লাখ টাকা।

বাবা-মা হীন শাহানার ফুফা অর্থাভাবে করাতে পারছিলেন না অপারেশন ও অসুস্থতার কারণে থেমে গিয়েছিলো তার পড়াশোনা।

দেশের অন্যতম অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলানিউজে এ বিষয়ক একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর বিষয়টি বসুন্ধরা গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সাফিয়াত সোবহানের নজরে আসে। এরপর তিনি প্রদান করেন পূর্ণ অর্থ সহায়তা। তাতেই হার্টের ভাল্ভের অপারেশন হয় শাহানার।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) কার্ডিওলজি বিভাগে শাহানার ভাল্ভে পরানোর অপারেশন সফলভাবে সম্পন্ন হয়।

বিষয়টি বাংলানিউজকে নিশ্চিত করেছেন বিএসএমএমইউর কার্ডিওলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. রেজওয়ানুল হক বুলবুল।

তিনি বাংলানিউজকে জানান, শাহানার হার্টের ভাল্ভ রিপেয়ারের অপারেশন সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। আর সবচেয়ে ভালো খবর হলো সে বিয়ের পর সন্তান নিতে পারবে। সাধারণত হার্টের ভাল্ভ পরানো হলে নারীদের ক্ষেত্রে সন্তান নেওয়ার সুযোগ থাকে না। কিন্তু তার বয়স কম হওয়ায় এবং অন্যান্য জটিলতা না থাকায় খুব ভালোভাবেই অপারেশনটি সফল হয়েছে। 

ছোটবেলায় শাহানার মায়ের মৃত্যু হয়, শৈশবেও বাবা হয়েছেন নিরুদ্দেশ। এরপর থেকে সে ফুফা মো. নূর আলমের কাছেই বড় হয়। অসুস্থতার কারণে খুলনার পাইওনিয়ার কলেজের এইচএসসির প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী শাহানার পড়াশোনা বন্ধ। এসব বিষয়ে বাংলানিউজকে বিস্তারিত জানিয়েছেন মো. নূর আলম।

তিনি বলেন, বছরখানেক আগে (শাহানা আক্তার) প্রায়ই বুকে ব্যথা, মাথা ব্যথাসহ বিভিন্ন কারণে অসুস্থ হয়ে পড়তো। হঠাৎ একদিন গুরুতর অসুস্থ হওয়ায় তাকে খুলনা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলাম। সেখান থেকে আমাদেরকে খুলনার শহীদ শেখ আবূ নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালে যেতে বলা হয়। আবূ নাসের হাসপাতালে বিভিন্ন টেস্টের পর বলা হয় হার্টের ভাল্ভ ব্লক হয়ে আছে। রিপেয়ার বা অপারেশন করা লাগবে। সেখান থেকে তখন ঢাকার হৃদরোগ হাসপাতালে রেফার্ড করা হলে আমরা হৃদরোগ হাসপাতালে আসি ও চিকিৎসা নেয়। দেড়মাস হৃদরোগ হাসপাতালে ভর্তি থাকার পর তারা ছয় মাসের ওষুধ দেয় এবং বলে এই ওষুধ  খাওয়া শেষ করে আসেন। এখন অপারেশনের অবস্থা নেই। ছয় মাস ধরে ওষুধ খেয়ে এসে আবার হৃদরোগে হাসপাতালে দেড়মাস চিকিৎসাধীন থাকার পর হাসপাতাল থেকে জানানো হয় এখন অপারেশন করা যাবে এবং এজন্য ৩ লাখ টাকা লাগবে।

কিন্তু দরিদ্র শাহানার ফুফার মো. নূর আলমের সামর্থ্য ছিলো না চিকিৎসার এই খরচ বহন করার। পরে চলতি বছরের ২৩ মার্চ দেশের শীর্ষ অনলাইন নিউজপোর্টাল বাংলানিউজে ‘৩ লাখ টাকায় বাঁচতে পারে কলেজছাত্রী শাহানার জীবন’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশ হলে আর্তমানবতার পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে আসেন বসুন্ধরা গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সাফিয়াত সোবহান।

এ বিষয়ে নূর আলম বলেন, বাংলানিউজের খুলনার ব্যুরো এডিটর মাহবুবুর রহমান মুন্না প্রতিবেদনটি করেন। তা দেখেই মূলত বসুন্ধরা গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সাফিয়াত সোবহান সাহায্য করতে আগ্রহী হয় এবং শাহানার চিকিৎসার কাগজপত্র দেখেন। আমরা কাগজপত্র নিয়ে দেখা করলে তিনি আমাদের ব্যাংকের চেকের মাধ্যমে তিন লাখ টাকা দেন। তা দিয়েই এখন শাহানার অপারেশনসহ অন্যান্য খরচ বহন করা হচ্ছে।

>> শাহানার চিকিৎসায় বসুন্ধরা গ্রুপের ৩ লাখ টাকা অনুদান

সুস্থ হয়ে ফিরলে আবার পড়াশোনা করবে শাহানা জানিয়ে তিনি আরও বলেন, শাহানা ও তার ছোট দু’ভাই আমাকেই বড় বাবা বলে ডাকে। আমার সীমিত অর্থ দিয়েই তার ও ছোট দু’ভাইয়ের  পড়াশোনা চলছে।

শাহানা সুস্থ হয়ে ফিরলে আবার পড়াশোনা করাবো আমি। এক বছরের বেশি সময় ধরে তার পড়াশোনা বন্ধ রয়েছে।

এদিকে সুস্থভাবে শাহানা জীবনযাপন করতে পারবে জানিয়ে বিএসএমএমইউর কার্ডিওলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. রেজওয়ানুল হক বুলবুল আরও বলেন, হার্টের ভাল্ভ রিপেয়ার করতে বেশ সময় লাগে। শাহানা সোমবার (১৫ এপ্রিল) অপারেশন থিয়েটারের আওতাধীন থাকবে। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) সেখান তাকে থেকে সরানো হবে। তবে শাহানার অপারেশন সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। সে স্বাভাবিক জীবযাপন করতে পারবে। 

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ১১, ২০১৯
এমএএম/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বসুন্ধরা গ্রুপ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-04-15 16:45:58