ঢাকা, শনিবার, ৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০ সফর ১৪৪২

জাতীয়

সাইবার আইনে দেশে প্রথম মামলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১১০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১, ২০১০
সাইবার আইনে দেশে প্রথম মামলা

চট্টগ্রাম: ইমেইল-এর পাসওয়ার্ড চুরি ও সার্ভার হ্যাকিংয়ের অভিযোগে চট্টগ্রামের একটি আদালতে সাত ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তরা সবাই আর্ন্তজাতিক মেরিন (নৌপরিবহন) ব্যবসার সঙ্গে জড়িত।



মামলাটি করেছেন ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন আব্দুল কাদের নামে এক মেরিন ব্যবসায়ী। তিনি নগরীর আগ্রাবাদ এলাকায় এইচবিএফসি ভবনে অবস্থিত হেণ্ডারসন ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

বাংলাদেশে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ২০০৬ এ মামলা দায়েরের ঘটনা এই প্রথম। মঙ্গলবার চট্টগ্রাম মূখ্য মহানগর হাকিম হেলাল উদ্দিনের আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়।

আদালত মামলাটি গ্রহণ করে এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নিতে ডবলমুরিং থানা পুলিশের অফিসার ইন চার্জ (ওসি) আইনুল হককে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।  

মামলায় অভিযুক্তরা হলেন ঢাকার গুলশান থানার বনানী এলাকার ক্যাপ্টেন আহমেদ রহুল্লাহ, চট্টগ্রামের কোতোয়ালী থানাধীন ২৮৮ চন্দনপুরা সিরাজউদ্দৌলা রোড এলাকার ক্যাপ্টেন দেলোয়ার হোসেন, পশ্চিম খুলশী নুরীয়া মাদ্রাসা রোড এলাকার মো. ইউসুফ উজ জামান, আন্দরকিল্লা এলাকার আমিনুল ইসলাম নাজির, ঢাকার কলাবাগান এলাকার জিল্লুর রহমান ভুঁইয়া ও তার কন্যা আনিকা ভুঁইয়া এবং তাদের ব্যবসায়িক পার্টনার কামরুল হাসান।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, ২০০৯ সালে অভিযুক্তরা বাদীর মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানের নামের অনুকরণে হেণ্ডারসন মেরিন বাংলাদেশ লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠান চালু করেন। তারা বাদীর প্রতিষ্ঠানের ইমেইল-এর পাসওয়ার্ড চুরি ও সার্ভার হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক গ্রাহকের সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেন। ২০০৯ সালের ২৩ ডিসেম্বর বাদী তার প্রতিষ্ঠানের ইমেইল অ্যাকাউন্টগুলো খুলতে চেয়ে ব্যর্থ হলে বিষয়টি নজরে আসে। পরে এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক কার্যালয়গুলোতে যোগাযোগ করা হয়। পরে বাদী জানতে পারেন আসামিরা দীর্ঘদিন ধরে জালিয়াতির মাধ্যমে তার অসংখ্য গ্রাহকের সঙ্গে যোগাযোগ করে কাজ হাতিয়ে নিয়েছেন। এতে বাদীর কয়েক কোটি টাকার তি হয়েছে।

বাদী পে মামলা পরিচালনাকারী অ্যাডভাকেট রানা দাশগুপ্ত বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে বলেন, ‘আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অভিযোগ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। অভিযোগটি ‘ননকগনিজেন্স অফেন্স’ বিধায় আদালত ওসিকে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করে ‘প্রসিকিউশন রিপোর্ট’ দাখিলেরও নির্দেশ দিয়েছেন। ’

বাংলাদেশ সময়: ১২৪০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০১, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa