ঢাকা, শনিবার, ৭ বৈশাখ ১৪২৬, ২০ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

ভেঙে গেছে বৈদ্যুতিক খুঁটি, গ্রাহ্য নেই কর্তৃপক্ষের

সৌমিন খেলন, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-২৫ ৫:৩৯:৪০ পিএম
ক্ষেতের মধ্যে ভেঙে পড়ে রয়েছে হাজার ভোল্টেজের বিদ্যুতের খুঁটি। ছবি: বাংলানিউজ

ক্ষেতের মধ্যে ভেঙে পড়ে রয়েছে হাজার ভোল্টেজের বিদ্যুতের খুঁটি। ছবি: বাংলানিউজ

কেন্দুয়া (নেত্রকোণা) থেকে: এক সপ্তাহ আগে ঝড়ের কবলে পড়ে নেত্রকোণার কেন্দুয়া উপজেলার কান্দিউড়া ইউনিয়নের (কেন্দুয়া-মদন সড়ক) গুগবাজার সংলগ্ন বইল্লাপুরি হাওরের ফসলের ওপর বিদ্যুতের দুইটি খুঁটি ভেঙে যায়। 

দিনের পর দিন অতিবাহিত হলেও ফসলের ক্ষেত থেকে খুঁটি দুইটি সরানো নিয়ে কোনো আগ্রহ দেখায়নি পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ। এদিকে, হাজার ভোল্টেজের দুইটি খুঁটি জমিতে পড়ে থাকায় প্রাণহানির ভয়ে কোনো কৃষক মাঠের আশেপাশে যাচ্ছেন না। ফলে ব্যাহত হচ্ছে চাষাবাদ।

এ বিষয়ে বেজগাতী গ্রামের কৃষক মিছুর উদ্দিন বাংলানিউজকে বলেন, খবর পেয়েও খুঁটিগুলো দাঁড় করিয়ে দেয়নি সংশ্লিষ্টরা। এদিকে মৃত্যুর ভয়ে আমরা কেউ জমিতে নামতে পারছি না।

গুগ গ্রামের কৃষক আবুল কাশেম বাংলানিউজকে বলেন, আটদিন ধরে হাজার ভোল্টেজের বিদ্যুৎ সরবরাহকারী খুঁটি দুইটি ফসলের ওপর পড়ে রয়েছে। বিষয়টি পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষকে জানানো হলেও তারা কোনো গ্রাহ্যই করছে না।

কেন্দুয়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) মো. আক্তারুজ্জামান লস্কর বাংলানিউজকে বলেন, ভেঙে যাওয়া খুঁটিগুলোতে বিদ্যুৎ সংযোগ নেই। সুতরাং ভয়ের কিছু নেই। তারপরও প্রয়োজন হলে লোক পাঠিয়ে তাদের আশ্বস্ত করা হবে। খুঁটিগুলো পাল্টে নতুন খুঁটি বসানোর প্রস্তুতি চলছে। আগামী ২-৩ দিনের মধ্যে নেত্রকোণা থেকে খুঁটি এনে কাজ শুরু হবে।

কেন্দুয়া উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আল-ইমরান রহুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, খোঁজ নিয়ে সংশ্লিষ্ট দফতরকে দ্রুত সময়ের মধ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩০ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০১৯
এনটি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14