ঢাকা, শনিবার, ৭ বৈশাখ ১৪২৬, ২০ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

স্বামীকে হত্যার দায়ে স্ত্রী ও তার প্রেমিকের যাবজ্জীবন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-২০ ৭:১২:৫০ পিএম
ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

সাতক্ষীরা: পরকীয়ার জের ধরে সাতক্ষীরার কলারোয়ায় স্বামীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার দায়ে স্ত্রী শাপলা খাতুন ও তার প্রেমিক কবিরুল ইসলামকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড, এক লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদলত। 

বুধবার (২০ মার্চ) বিকেলে সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরুণাভ চক্রবর্ত্তী এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- কলারোয়া উপজেলার পাঁচনল গ্রামের নিহত নুর মোহাম্মদের স্ত্রী শাপলা খাতুন ও একই গ্রামের মৃত আমিন ঢালীর ছেলে ও শাপলার প্রেমিক কবিরুল ইসলাম। 

মামলার বিবরণে জানা যায়, কলারোয়া উপজেলার পাঁচনল গ্রামের নুর মোহাম্মদের স্ত্রীর সঙ্গে কবিরুল ইসলাম পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি জানাজানি হলে এক পর্যায়ে নুর মোহাম্মদ তার স্ত্রীর পরকীয়ায় বাধা দেয়। এতে তার স্ত্রী শাপলা ও প্রেমিক কবিরুল ক্ষিপ্ত হয়ে ২০১০ সালের ১৩ ডিসেম্বর রাত ২টার দিকে নুর মোহাম্মদকে ঘুমন্ত অবস্থায় শ্বসরোধ করে হত্যা করে। 

এ ঘটনায় নিহত নুর মোহাম্মদের বোন স্কুল শিক্ষিকা ফরিদা খাতুন বাদী কলারোয়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) মেজবাহ উদ্দীন, জিয়াউর রহমান ও মহসীন হোসেন দীর্ঘ তদন্ত শেষে এ মামলার আসামি শাপলা খাতুন ও তার প্রেমিক কবিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দেন।

বুধবার এ মামলায় নিহতের দুই শিশু পুত্র মোস্তাক আহমেদ ও মোস্তাক হাসানসহ ২১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আসামিদের এ দণ্ড দেন।

মামলার রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী ও সাতক্ষীরা জজ কোর্টের এপিপি অ্যাডভোকেট ফাহিমুল হক কিসলু বাংলানিউজকে জানান, রায় ঘোষণার সময় আসামিরা পলাতক ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৬ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০১৯
এনটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   সাতক্ষীরা কারাদণ্ড
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14