ঢাকা, শনিবার, ৬ বৈশাখ ১৪২৬, ২০ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

‘আবরার আহমেদ ফুটওভার ব্রিজের’ ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-২০ ১২:৫০:২৪ পিএম
আবরার আহমেদ ফুট ওভার ব্রিজ উদ্বোধন/ছবি: বাংলানিউজ

আবরার আহমেদ ফুট ওভার ব্রিজ উদ্বোধন/ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: সুপ্রভাত বাসের চাপায় নিহত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরীর (২০) নামে নির্মিতব্য ফুটওভার ব্রিজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে। 

বুধবার (২০ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর প্রগতি সরণিতে আবরারের বাবা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আরিফ আহমেদ চৌধুরীর পক্ষে এ ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। এর মাধ্যমে ফুট ওভার ব্রিজ নির্মাণকাজের উদ্বোধন করেন মেয়র।

এসময় আবরারের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস (বিইউপি) এর উপাচার্য মেজর জেনারেল মোহাম্মদ এমদাদুল বারী, ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়াসহ ডিএনসিসি, ডিএমপি এবং বিইউপি’র ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন শেষে মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, আমি আবরারের বাবা ও পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছি। সেখানে না গেলে বোঝা যাবে না যে এটি কত হৃদয়বিদারক ঘটনা। এখানকার জনগণের, ছাত্রছাত্রীদের দাবি, এখানে একটি ফুটওভার ব্রিজ হোক। আমি গতকাল এখানে এসে বলেছিলাম, এখানে ফুটওভার ব্রিজ হবে। আজ তার কার্যক্রম শুরু করে গেলাম। আগামী দুই মাসের মধ্যে এ ব্রিজের কাজ শেষ হবে। এ ব্রীজ আবরারের নামে হবে, আর এর উদ্বোধক হবেন তার বাবা।

নিরাপদ সড়কের জন্য প্রয়োজনে প্রতি সপ্তাহে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা করবেন জানিয়ে মেয়র বলেন, প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে দুই বা তিন জন করে প্রতিনিধি নিয়ে ইউনিট গঠন করে আমার কাছে আসুন। প্রতি সপ্তাহে অন্তত একদিন আপনাদের সঙ্গে আমি আলাপ করব। আপনাদের কাছ থেকে পরামর্শ নিয়ে, আপনাদের সঙ্গে নিয়ে ঢাকার সড়ককে নিরাপদ করব আমরা। ঢাকায় পাল্লা দিয়ে বাস চলবে- এমনটা আর হতে দেওয়া যাবে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরাপদ সড়ক তৈরি করতে আমাদের সবাইকে নির্দেশ দিয়েছেন। আজ বিকেলেই দক্ষিণ সিটি করপোরেশন অফিসে সবাইকে নিয়ে আমরা একটি সভা করব। যত দ্রুত সম্ভব আমাদের কিছু কাজ করতে হবে।

এর আগে বক্তব্য রাখেন ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া। তিনি বলেন, গতকাল রাতেই আমরা জরুরি ভিত্তিতে সুপ্রভাত বাসের রুট পারমিট বাতিল করেছি। ঘাতক বাসের চালককে গ্রেফতার করে মামলা রুজু করেছি। ঢাকা শহরে সুপ্রভাত পরিবহনের কোন বাস চলবে না। ট্রাফিক সপ্তাহ, ট্রাফিক পক্ষ এবং ট্রাফিক মাসের মতো আমাদের নিয়মিত কাজগুলো চলছে। সব বাস কোম্পানিগুলোকে ফ্রাঞ্চাইজি ব্যবস্থায় নিয়ে আসা হচ্ছে। এমনটা হলে ঢাকা গণপরিবহন ব্যবহার চিত্রই পালটে যাবে। কোনো বাস বা গণপরিবহনের কোনো ধরনের অনিয়ম আমরা সহ্য করব না। যেখানে সেখানে বাস থামিয়ে যারা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এসময় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দাবির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেন মেয়র ও ডিএমপি কমিশনার। দাবিগুলো দ্রুত বাস্তবায়নের আশ্বাস দিয়ে শিক্ষার্থীদের সড়ক ছেড়ে শ্রেণীকক্ষে ফিরে যাওয়ার অনুরোধ করেন তারা।

মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) সকালে প্রগতি সরণি এলাকায় সু-প্রভাত বাসের চাপায় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস (বিইউপি)-এর শিক্ষার্থী আবরার আহম্মেদ চৌধুরী নিহত হয়। পরে সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় তারা ৮ দফা দাবিতে সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে। বুধবারও তারা দ্বিতীয় দিনের মতো সড়কে অবস্থান করছে।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪৬ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০১৯
এসএইচএস/এসএইচ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ছাত্র বিক্ষোভ নিরাপদ সড়ক চাই
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14