ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আষাঢ় ১৪২৬, ২৫ জুন ২০১৯
bangla news

বাংলাদেশ স্বাধীন হলেও মুক্তির সংগ্রাম অব্যাহত রয়েছে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-১৭ ২:২২:৫৮ পিএম
সিদ্ধেশ্বরী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী আয়োজন

সিদ্ধেশ্বরী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী আয়োজন

ঢাকা: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে স্বাধীনতা সংগ্রামের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ স্বাধীন হলেও মুক্তির সংগ্রাম এখনও অব্যাহত রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের (মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ) সিনিয়র সচিব সোহরাব হোসাইন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতির নেতা ছিলেন। তিনি কোনো রাজনৈতিক দলের নেতা ছিলেন না। এ জন্যই বঙ্গবন্ধুর আহ্বানে সাড়া দিয়ে মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লাখ মানুষ শহীদ হয়েছিলেন। তাদের স্বপ্ন ছিল একটাই, বাংলা ও বাঙালির মুক্তি। 

রোববার (১৭ মার্চ) সিদ্ধেশ্বরী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস ২০১৯ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

সিদ্ধেশ্বরী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ রইশুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর মহাপরিচালক ফসিউল্লাহ। এছাড়া স্কুলের প্রধান শিক্ষক সাহাক উদ্দিন মোল্লা, সহকারী প্রধান শিক্ষক দেলোয়ার হোসেন, শামীমা আক্তার শামাসহ পরিচালনা পরিষদের সদস্য, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। 

সোহরাব হোসেন বলেন, বাঙালির জাতীয় জীবনের শ্রেষ্ঠ অর্জন মহান স্বাধীনতা। আর এই স্বাধীনতা সংগ্রামের নেতৃত্ব দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু। তিনি বাংলাদেশ ও এদেশের মানুষদের খুব ভালোবাসতেন। আমরা বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ করি তার বিশালতার জন্য। তিনি এদেশের সব মানুষকে ভালোবাসতেন। আজ আমরা তার জন্মদিন পালন করি কারণ তার মতো যেন একাধিক মানুষ সমাজে গড়ে উঠে। যাদের দিয়ে দেশ ও জাতির মঙ্গল হবে।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশে পরিণত করতে আজকের শিক্ষার্থীদের উন্নত মানসিকতার অধিকারী হতে হবে। আর এক্ষেত্রে স্কুলগুলোকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে। এই শিক্ষার্থীরাই একদিন দেশের নেতৃত্ব দেবে। আজ যারা শিক্ষার্থী তারা একদিন গুরুত্বপূর্ণ মানুষ হবে। 

সচিব বলেন, বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা স্বপ্নপূরণে এগিয়ে যাচ্ছি। আমাদের জাতীয় বাজেট দিন দিন বাড়ছে। শিক্ষাখাতেও বাড়ানো হবে। 

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ফসিউল্লাহ বলেন, আমাদের মূল অর্জন স্বাধীন বাংলাদেশ। আর এটা সম্ভব হয়েছে বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের জন্য। স্বাধীনতা বিরোধীরা ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে দেশের উন্নয়ন থামিয়ে দিতে চেয়েছিল। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর হত্যাকাণ্ডের বিচারের মাধ্যমে দেশ আজ কলঙ্কমুক্ত হয়েছে। তারপরও ষড়যন্ত্র থেমে নেই। অপশক্তিরা সুযোগ পেলেই দেশকে পিছিয়ে দিতে চায়। তাই শিক্ষার্থীদের সঠিক ইতিহাস জানতে হবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে হবে। শিক্ষার্থীদের উন্নত ও পরিপূর্ণ মানুষ হতে হবে। 

নীতি-নৈতিকতাবোধ জাগ্রত করে দেশকে সবার ভালোবাসার আহ্বান জানান তিনি। 

বাংলাদেশ সময়: ১৪২০ ঘণ্টা, মার্চ ১৭, ২০১৯
জিসিজি/জেডএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-03-17 14:22:58