ঢাকা, বুধবার, ৩ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

সেন্টমার্টিনে আটকা পড়েছেন ১৩শ’পর্যটক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-০৬ ৩:২৮:৫৯ পিএম
সেন্টমাটিনে নৌপথে চলছে জাহাজ, ছবি: বাংলানিউজ

সেন্টমাটিনে নৌপথে চলছে জাহাজ, ছবি: বাংলানিউজ

কক্সবাজার: নিম্নচাপের প্রভাবে সাগর উত্তাল ও তিন নম্বর সর্তক সংকেত থাকায় সেন্টমার্টিনে বেড়াতে গিয়ে আটকা পড়েছেন ১৩শ’ পর্যটক। কক্সবাজারের টেকনাফ সেন্টমাটিনে নৌপথে জাহাজ চলাচল বন্ধ রেখেছে স্থানীয় প্রশাসন।

বুধবার (৬ মার্চ) সকাল থেকে পর্যটকবাহী কোনো জাহাজ ছেড়ে না যাওয়ায় আটকপড়া পর্যটকদের ফিরিয়ে আনা সম্ভব হয়নি। তবে আটকাপড়া পর্যটকরা নিরাপদে আছেন বলে জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

এর আগে মঙ্গলবার (৫ মার্চ) আটকা পড়াসহ অন্তত ৩ হাজার পর্যটক সেন্টমার্টিন ভ্রমণে যায়। এ সময় প্রায় ১৩শ’পর্যটক দ্বীপে রাত্রিযাপনের জন্য থেকে যায়। 

বুধবার সকাল থেকে কক্সবাজারে হালকা এবং মাঝারি বৃষ্টিপাত হয় এবং সাগর উত্তাল থাকায় টেকনাফ সেন্টমার্টিন রুটে নৌ চলাচল বন্ধ রেখেছে স্থানীয় প্রশাসন।       

পর্যটকবাহী জাহাজ কেয়ারি সিন্দাবাদের  ব্যবস্থাপক শাহ আলম বাংলানিউজকে জানান, মঙ্গলবার টেকনাফ থেকে চারটি জাহাজে করে প্রায় তিন হাজার পর্যটক সেন্টমার্টিন ভ্রমণে যান। সেখান থেকে অর্ধেকের বেশি পর্যটক টেকনাফ চলে আসে। কিন্তু বৈরী আবহাওয়ার কারণে বুধবার টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিনে কোনো জাহাজ না যাওয়ায়  প্রায় ১৩শ’ পরযটক ফিরতে পারেননি।

তিনি আর জানান, দুপুরের পর থেকে আকাশ পরিষ্কার হয়ে আসায় আশা করছি প্রশাসনের অনুমতি পেলে বৃহস্পতিবার (৭ মার্চ) থেকে আবার চালু করা যাবে নৌযান।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রবিউল হাসান বাংলানিউজকে জানান, আবহাওয়ার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে সেন্টমার্টিন থেকে আটকাপড়া পর্যটকদের নিরাপদ ফিরিয়ে আনা হবে। 

তিনি আরও জানান, আটকাপড়া পর্যটকদের নিরাপত্তা ও থাকা খাওয়ার ব্যাপারে যাতে কোনো অসুবিধা না হয় সে বিষয়ে নজরদারি করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৭ ঘণ্টা, মার্চ ০৬, ২০১৯
এসবি/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   কক্সবাজার পর্যটন পর্যটক
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-03-06 15:28:59