ঢাকা, শনিবার, ৭ বৈশাখ ১৪২৬, ২০ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

চকবাজারের ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে না

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০২-২২ ১২:৫০:৫২ পিএম
রোগীদের দেখতে ঢামেক হাসপাতালে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন/ছবি- ডি এইচ বাদল

রোগীদের দেখতে ঢামেক হাসপাতালে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন/ছবি- ডি এইচ বাদল

ঢাকা: চকবাজারের মতো ভবিষ্যতে আর এমন ঘটনা যেন না ঘটে সেজন্য সরকার পদক্ষেপ নেবে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।

শুক্রবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চকবাজারে পুড়ে যাওয়া রোগীদের দেখতে এসে সাংবাদিকদের সামনে এ কথা বলেন রেলমন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে রয়েছে সরকার। আহতদের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, নিমতলীর ঘটনার পর ইতিপূর্বে কেমিক্যাল কারখানা তুলে দেওয়া হয়েছিল। আবার তারা একই জায়গায় নিয়ে এসেছে। ভবিষ্যতে যাতে এমন ঘটনা আর না ঘটে সেজন্য পদক্ষেপ নেবে সরকার।

এদিকে ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন নয়জনই ঝুঁকিতে রয়েছেন বলে জানিয়েছেন বার্ন ইউনিটের প্রধান সমন্বয়কারী ডা. সামন্ত লাল। 

তিনি বলেন, বার্ন ইউনিটে থাকা সর্বশেষ নয়জনের মধ্যে পাঁচজন আইসিইউতে, তারা সম্পূর্ণ ঝুঁকিতে রয়েছেন। বাকি চারজনও ঝুঁকিতে। কারণ তাদের প্রত্যেকের শ্বাসনালী পুড়ে গেছে। শ্বাসনালী পুড়ে গেলে রোগীরা ঝুঁকিতে থাকেন। 

তবে তাদের সুচিকিৎসা চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে জানান সামন্ত লাল।

বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৬৭ জন পুড়ে মারা যায়। চকবাজারের নন্দকুমার দত্ত রোডের শেষ মাথায় চুড়িহাট্টা শাহী মসজিদের পাশে ৬৪ নম্বর হোল্ডিংয়ের ওয়াহিদ ম্যানশনে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। আবাসিক ভবনটিতে কেমিক্যাল গোডাউন থাকায় আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১৯
এমআইএইচ/জেডএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চকবাজার ট্র্যাজেডি
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14