ঢাকা, রবিবার, ১০ চৈত্র ১৪২৫, ২৪ মার্চ ২০১৯
bangla news

সাইকেলে চেপে হিরণের বিবাহবার্ষিকী উদযাপন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০২-২১ ৮:২৩:১৭ পিএম
হিরণের বাইসাইকেল শোভাযাত্রা-ছবি-বাংলানিউজ

হিরণের বাইসাইকেল শোভাযাত্রা-ছবি-বাংলানিউজ

খুলনা: বিবাহবার্ষিকীকে জাঁকজমকভাবে উদযাপন করেন অনেকে। আত্মীয়-স্বজন আর বন্ধুদের দাওয়াত করা হয় বাসায় কিংবা রেস্তোরাঁয়। নাচ, গানসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সঙ্গীকে উপহার হিসেবে দেওয়া হয় পারফিউম, ফুল, বই, পোশাক, ঘড়ি বা অন্য কোনো পছন্দের জিনিস। এসব প্রচলিত প্রথা থেকে বেরিয়ে বাইসাইকেল চালিয়ে সচেতনামূলক বার্তা দিয়ে বিবাহবার্ষিকী উদযাপন করেছেন শরিফুল ইসলাম হিরণ।

বৃহস্পতিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান গেটের সামনে থেকে দল বেঁধে সাইকেল চালিয়ে বিবাহবার্ষিকী উদযাপন করেন তিনি।

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (ডিবি) এ এম কামরুল ইসলাম কেক কেটে সাইকেল শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন। ফুল দিয়ে সাজানো সাইকেলে চড়ে একদল সাইক্লিস্ট নিয়ে শোভাযাত্রাটি শেষ হয় মহানগরীর শিববাড়ি এলাকায়।

এসময় সড়কের পথচারী উৎসুক দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকে শোভাযাত্রাটির দিকে। পরিবেশবান্ধব বাইসাইকেল ব্যবহারে উৎসাহ জোগাতে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছেন সাইক্লিস্ট হিরণ। ২০১৭ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি সাইকেল চালিয়ে বরযাত্রীসহ গিয়ে বিয়ে করে আলোচিত হন তিনি। ঠিক এক বছর পর ২০১৮ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি দল বেঁধে বাইসাইকেল চালিয়ে ১ম বিবাহবার্ষিকী উদযাপন করেছেন তিনি। এবারও তেমনি সাইকেল চালিয়েই বিবাহবার্ষিকী উদযাপন করলেন।

২০১৪ সালে একদিন ছোটবেলার বন্ধু বাহারুল ইসলাম জাফনিনকে নিয়ে সাইকেলে বেরিয়ে পড়েন হিরণ। বাংলাদেশের ৬৪ জেলা ভ্রমণ করে লিফলেটের মাধ্যমে জন্মগত ক্লাবফুট, ঠোঁট ও তালুকাটা সম্পর্কে মানুষের মধ্যে সচেতনতা গড়ে তোলেন।

সুস্থ জীবন গড়ি, মাদককে না বলি-স্লোগানকে সামনে রেখে বাইসাইকেল চালিয়ে মাদকের বিরুদ্ধে ২০১৮ সালের খুলনার খানজাহান আলী (র.) সেতু (রূপসা সেতু) থেকে ভারতের কলকাতার হাওড়া ব্রিজ পর্যন্ত প্রচারাভিযান করেন হিরণ ও বাহারুল ।

হিরণ খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান গেটের সামনের কেওড়া ক্যাফে অ্যান্ড রেস্টুরেন্টের মালিক। তিনি ডুমুরিয়ার রাজিবপুর গ্রামের ব্যাংকার শেখ মো. রাশেদুল ইসলামের ছেলে। বিয়ে করেছেন খুলনার পুরনো গল্লামারীর কুবা মসজিদ সংলগ্ন কন্ট্রাক্টর আব্দুল মুতালিব তালুকদারের মেয়ে তাসনিয়া তাবাস্সুম শিউলীকে। দুই বছরের বিবাহ জীবনে তার ১৪ মাসের একটি মেয়ে আছে।

হিরণ বলেন, ২য় বিবাহবার্ষিকীতে আমি ও আমার স্ত্রী তাসনিয়া তাবাসুম শিউলীর পক্ষ থেকে সাইকেল র‌্যালির মাধ্যমে সচেতনতামূলক বার্তা সবার কাছে পৌঁছাতে চাই। আর তা হলো-সাইকেল চালান, পরিবেশ বাঁচান, পরিবেশ দূষণ কমাতে সাইকেল চালান, হেলমেট ব্যবহার করুন, ট্রাফিক আইন মেনে চলুন, সাইকেল চালালে শারীরিক সুস্থতা বজায় থাকে, পরিবেশ দূষণের আশঙ্কা নেই, সড়ক দুর্ঘটনা কমবে, পরনির্ভরশীলতা কমে। 

তিনি প্রতি বছর এদিনে সাইকেল চালানোর মাধ্যমে বিভিন্ন বিষয়ে সচেতনামূলক ধারণা দেওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১৯
এমআরএম/আরআর

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   খুলনা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14