[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ১০ ফাল্গুন ১৪২৫, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
bangla news

টাকাভর্তি ব্যাগ পেয়ে থানায় জমা দিলেন ব্যাংক কর্মকর্তা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০২-১১ ১০:৩৮:৩৫ পিএম
টাকা। ফাইল ফটো

টাকা। ফাইল ফটো

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জে সিএনজি চালিত অটোরিকশায় কয়েক লাখ টাকার ব্যাগ কুড়িয়ে পেয়ে টাকার প্রকৃত মালিককে খুঁজে ফেরত দেওয়ার জন্য পুলিশের কাছে বুঝিয়ে দিয়েছেন সারোয়ার জাহান নামে এক ব্যাংক কর্মকর্তা।

সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ঢাকা-পাগলা-নারায়ণগঞ্জ সড়কের শ্যামপুরের ঢাকা ম্যাচ কারখানার সামনে থেকে ব্যাগটি পাওয়া যায়। সারোয়ার জাহান ইউসিবি ব্যাংক নারায়ণগঞ্জ শাখার জুনিয়র অফিসার। তিনি নারায়ণগঞ্জ শহরের পাইকপাড়া এলাকার আব্দুল কাদেরের ছেলে।

সারোয়ার জাহান বাংলানিউজকে বলেন, ঢাকায় অফিসের কাজ শেষ করে শ্যামপুরের ঢাকা ম্যাচ এলাকার সামনে থেকে নারায়ণগঞ্জের উদ্দেশে সিএনজি চালিত অটোরিকশায় রওনা হই। সিএনজিতে উঠতেই সিটের পাশে একটি ব্যাগ দেখতে পাই। ব্যাগটি খুলে দেখতে পাই অনেকগুলো টাকা ও ছবিসহ পাসপোর্টের একটি ফটোকপি রয়েছে। সিএনজি চালকও জানেন না ব্যাগটি কার, তাই ফতুল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঞ্জুর কাদের কাছে জমা দেই। যাতে তিনি ব্যাগটি প্রকৃত মালিকের কাছে পৌঁছে দিতে পারেন।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঞ্জুর কাদের বাংলানিউজকে বলেন, এখানে ৪ থেকে ৫ লাখ টাকা ও একটি পাসপোর্টের ফটোকপি আছে। ধারণা করা হচ্ছে ব্যাগটির মালিক বিদেশ যাওয়ার জন্য টাকা জমা দিতে কিংবা ব্যাংক থেকে টাকা তুলে নিয়ে যাচ্ছিলেন। মনের ভুলে ব্যাগটি তিনি সিএনজিতে ফেলে রেখে চলে যান। সারোয়ার জাহান মহৎ মানুষ, যে এতো টাকা পেয়েও কোনো লোভ না করে প্রকৃত মালিককে পৌঁছে দেওয়ার জন্য পুলিশের কাছে নিয়ে এসেছেন।

তিনি আরো বলেন, টাকাগুলো সিএনজিতে পাওয়া গেছে সেহেতু সিএনজি চালকের নাম ও সারোয়ার জাহানের নাম উল্লেখ করে একটি জিডি করা হয়েছে। ফেসবুক, গণমাধ্যমে প্রচারসহ পাসপোর্টের ঠিকানায় যোগাযোগ করে উপযুক্ত প্রমাণের মাধ্যমে প্রকৃত মালিকের কাছে টাকা ফেরত দেওয়ার চেষ্টা চলছে।    

বাংলাদেশ সময়: ২২৩৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯
এনটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   নারায়ণগঞ্জ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache