bangla news

লামায় অগ্নিকাণ্ডে ৩১ দোকান পুড়ে ছাই

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০২-০৫ ৪:০৯:০৩ পিএম
লামায় অগ্নিকাণ্ডে ৩১ দোকান পুড়ে ছাই। ছবি: বাংলানিউজ

লামায় অগ্নিকাণ্ডে ৩১ দোকান পুড়ে ছাই। ছবি: বাংলানিউজ

বান্দরবান: বান্দরবানের লামায় উপজেলার রূপসীপাড়া বাজারে আগুন লেগে ৩১টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে এক কোটি টাকারও বেশি  ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্তদের দাবি।

মঙ্গলবার (০৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। 

বাজারের ব্যবসায়ীরা জানায়, সকালে হঠাৎ আগুন লেগে মুহুর্তেই তা পুরো বাজারে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে লামা ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিটের কর্মীরা  ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয়দের সহযোগিতায় প্রায় দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। 

অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তরা হলেন- মো. মিলন (মুদি দোকান), রিপন (চায়ের দোকান), মো. জাফর (মুদি), আবেদ আলী (হার্ডওয়ার, ইলেকট্রনিকস-২টি, ওয়ার্কশপ), তোয়াজ মিয়া (বসতঘর), মো. কামাল (চায়ের দোকান), নাছির (মুদি), সুলতান কারবারী (চায়ের দোকান), আকাশ (হারবাল ওষুধ), নূর আলম (মুদি), আবু বক্কর ছিদ্দিক (মুদি), মমতাজ (সারের ডিলার), আব্দুস সাত্তার গাজী (ফার্মেসি), মতিউর রহমান (মুদি), মো. শহীদ (মুদি), নজির মিয়া (৪টি মুদি ও গুদাম), রানা (মুদি), ইউছুপ (কম্পিউটার দোকান), এমাদুল (মুদি), ছলিম উল্লাহ (হোমিও), রফিক (কম্পিউটার), আনিচ (মুদি), আবজাল (মুদি), আব্দুল লতিফ (কাঁচামাল) ও মংচিংথুই মার্মা (কম্পিউটার)। বাকিদের নাম জানা যায়নি।

লামা ফায়ার স্টেশনের স্টেশন অফিসার নয়ন জীব চাকমা বাংলানিউজকে বলেন, বৈদ্যুতিক শর্ট-সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তে পাওয়া গেছে। অগ্নিকাণ্ডে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ কোটি টাকারও বেশি বলে ক্ষতিগ্রস্তদের দাবি। 

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৫, ২০১৯
এসআরএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বান্দরবান অগ্নিকাণ্ড
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2019-02-05 16:09:03