ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ আগস্ট ২০২০, ২৩ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

গুলিতে বাংলাদেশির প্রাণহানিতে বিএসএফের দুঃখ প্রকাশ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৪০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২, ২০১৯
গুলিতে বাংলাদেশির প্রাণহানিতে বিএসএফের দুঃখ প্রকাশ বাউরা ডাঙ্গাটারী সীমান্তের ফাইল ছবি

লালমনিরহাট: লালমনিরহাটের পাটগ্রাম সীমান্তে আসাদুল ইসলাম (২৯) নামে এক বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) পতাকা বৈঠকে দুঃখ প্রকাশ করেছে।

শনিবার (২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ক্যাম্প কমান্ডার পর্যায়ের পতাকা বৈঠকে বডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) কাছে দুঃখ প্রকাশ করে বিএসএফ।

আসাদুল পাটগ্রাম উপজেলার বাউরা ইউনিয়নের নবিনগর এলাকার মতিয়ার রহমানের ছেলে।

 

রংপুর-৫১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মোস্তাফিজুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, সকালে পাটগ্রাম উপজেলার বাউরা ডাঙ্গাটারী সীমান্তে ৮০২ নম্বর পিলার এলাকা দিয়ে অবৈধভাবে ভারতীয় সীমান্ত অতিক্রম করে গরু নিয়ে ফিরছিলেন আসাদুলসহ কয়েকজন রাখাল। ভারতে অভ্যন্তরে সানিয়াজান নদীর বেইলি ব্রিজ অতিক্রমের সময় বিএসএফ-১৪৩ ব্যাটালিয়নের নিউকুচলিবাড়ি ক্যাম্পের টহল সদস্যরা তাদের ধাওয়া দিলে চোরাকারবারীরা পাল্টা আক্রমনের চেষ্টা করে। এ সময় আত্মরক্ষার জন্য বিএসএফ সদস্যরা পাণ্টা গুলি ছুড়লে ঘটনাস্থলে মারা যান আসাদুল। বাকিরা পালিয়ে যান। পরে আসাদুলের মরদেহ সকাল ৯টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে ক্যাম্পে নিয়ে যান বিএসএফ সদস্যরা।

নিহতের পরিবারের অভিযোগে কোম্পানি কমান্ডার পর্যায়ের পতাকা বৈঠকের আহ্বান জানিয়ে বিএসএফকে চিঠি পাঠায় বিজিবি। এ আহ্বানে ওই সীমান্তের জিরোলাইনে বিকেলে কোম্পানি কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে বাংলাদেশি গরুর রাখাল আসাদুলকে হত্যার দায় স্বীকার করে বিজিবির কাছে দুঃখ প্রকাশ করে বিএসএফ।

ভারতীয় মর্গে মরদেহ ময়নাতদন্ত করে রোববার (৩ ফেব্রুয়ারি) বিজিবির কাছে নিহত আসাদুলের মরদেহ হস্তান্তর করবে বলে পতাকা বৈঠকের বরাত দিয়ে বাংলানিউজকে নিশ্চিত করেন ওই কর্মকর্তা।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০২, ২০১৯
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa