[x]
[x]
ঢাকা, বুধবার, ৫ চৈত্র ১৪২৫, ২০ মার্চ ২০১৯
bangla news

সিলেটে বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেলো ছেলের

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০১-১৭ ৫:২৩:৫৬ পিএম
নিহত কুতুব আলীর মরদেহ। ছবি: বাংলানিউজ

নিহত কুতুব আলীর মরদেহ। ছবি: বাংলানিউজ

সিলেট: প্রতিপক্ষের লোকজন বাড়ির পাশ থেকে বাঁশ কেটে নিচ্ছিলো। তাতে বাধা হয়ে দাঁড়ান বৃদ্ধ আমজাদ আলী। প্রতিপক্ষ আমজাদ আলীকে ঘেরাও করে রাখে। ঘর থেকে বেরিয়ে ঘটনাটি দেখতে পেরে বৃদ্ধ বাবাকে রক্ষায় এগিয়ে যান কুতুব আলী। প্রতিপক্ষের শরিফ নামে একজন কুড়াল দিয়ে কুতুবের মাথায় আঘাত করে। এসে ঘটনাস্থলে লুটিয়ে পড়েন তিনি। তাকে উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে ভারত সীমান্তঘেঁষা সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার লাফনাউট আলীর গাঁওয়ে। বৃহস্পতিবার (১৭ জানুয়ারি) সকালে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন কুতুব। এ ঘটনায় তার ছেলেসহ আরও পাঁচজন আহত হয়ে একই হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।
 
কুতুবের শ্বশুর আব্দুন নুর বাংলানিউজকে জানান, সকাল ৭টায় কুতুব আলীর বাড়ির বাঁশঝাড় থেকে বাঁশ কেটে নিচ্ছিলেন একই এলাকার শরিফ উদ্দিন, জলিল ও তার ছেলে আলা উদ্দিন, এনামসহ ৬-৭ জন। তাদের বাধা দিতে গিয়ে হামলার মুখে পড়েন কুতুবের বাবা আমজাদ আলী। তাকে বাঁচাতে গিয়ে শরিফ নামের এক প্রতিবেশীর কুড়ালের আঘাতে গুরুতর আহত হন কুতুব। তাকে উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে ৮টায় মারা যান তিনি।
 
গোয়াইনঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল জলিল বাংলানিউজকে বলেন, বাঁশ কাটতে বাধা দেওয়ায় প্রতিবেশী প্রতিপক্ষের হামলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে কুতুব নিহত হন। তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৭১৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৭, ২০১৯
এনইউ/এইচএ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache