ঢাকা, শুক্রবার, ৫ বৈশাখ ১৪২৬, ১৯ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

‘বিজয় উৎসব’ ঘিরে ঢাকার যেসব সড়ক এড়িয়ে চলবেন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০১-১৭ ২:৩৭:২০ পিএম
সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ম্যাপ (চিহ্নিত)

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ম্যাপ (চিহ্নিত)

ঢাকা: আগামী শনিবার (১৯ জানুয়ারি) রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ‘বিজয় উৎসব’ করবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। এ উপলক্ষে অত্র এলাকার চারপাশের সড়কে যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করবে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ট্রাফিক বিভাগ।

তাই এদিন সকাল থেকে অনুষ্ঠান শেষ না হওয়া পর্যন্ত চলাচলের ক্ষেত্রে কিছু বিধি অনুসরণের নির্দেশনা দিয়েছে ডিএমপি। বৃহস্পতিবার (১৭ জানুয়ারি) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘বিজয় উৎসবে’ যোগ দিতে ঢাকা শহরসহ আশপাশের এলাকা থেকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বাস, ট্রেন, লঞ্চযোগে ব্যাপক গণজমায়েত হবে। অনুষ্ঠান নির্বিঘ্ন করতে শাহবাগ থেকে মৎস্য ভবন পর্যন্ত সড়ক সর্বসাধারণের চলাচলের জন্য বন্ধ থাকবে এবং সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের চারদিকের রাস্তায় যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

প্রধানমন্ত্রীসহ অতিথিদের গমনাগমন উপলক্ষে অনুষ্ঠানস্থলের চারপাশের বিভিন্ন ইন্টারসেকশন যেমন-বাংলামোটর, হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল, শাহাবাগ, কাঁটাবন, নীলক্ষেত, পলাশী, বকশীবাজার, চাঁনখারপুল, গোলাপশাহ মাজার, জিরো পয়েন্ট, পল্টন, কাকরাইল চার্চ, অফিসার্স ক্লাব, মিন্টু রোড ক্রসিংগুলো থেকে গাড়ি ডাইভারশন অনুসরণ করবে।

এছাড়া, গাবতলী, মিরপুর রোড হয়ে আগত ব্যক্তিরা সায়েন্সল্যাব-নিউমার্কেট হয়ে নীলক্ষেতে নেমে পায়ে হেঁটে টিএসসি হয়ে বিভিন্ন গেট দিয়ে উদ্যানে প্রবেশ করবেন এবং তাদের বাসসমূহ বিশ্ববিদ্যালয়ের মল চত্বর এবং নীলক্ষেত থেকে পলাশী পর্যন্ত রাস্তার উভয় পার্শ্বে এক লাইনে পার্কিং করবে।

উত্তরা থেকে এয়ারপোর্ট রোড হয়ে মহাখালী, মগবাজার, কাকরাইল চার্চ, রাজমনি ক্রসিং, নাইটিঙ্গেল মোড়, পল্টন মোড়, জিরো পয়েন্ট অথবা খিলক্ষেত ফ্লাইওভার, বাড্ডা, গুলশান, রামপুরা রোড, মৌচাক ফ্লাইওভার, মালিবাগ, শান্তিনগর, রাজমনি ক্রসিং, নাইটিঙ্গেল হয়ে পল্টন মোড়/জিরো পয়েন্ট হয়ে আগতরা পল্টন মোড়/জিরো পয়েন্টে নেমে পায়ে হেঁটে দোয়েল চত্বর হয়ে উদ্যানের বিভিন্ন গেট দিয়ে অনুষ্ঠানস্থলে গমন করবেন। তাদের বাসসমূহ মতিঝিল এলাকায় পার্কিং করবে। 

উত্তরা/এয়ারপোট থেকে আগত গাড়িগুলোর পার্কিং স্থান মতিঝিল/গুলিস্থানে সংকুলান না হলে প্রয়োজনে হাতিরঝিল এলাকায় পার্কিং করা হতে পারে।

পূর্বাঞ্চল থেকে যাত্রাবাড়ী হয়ে এবং দক্ষিণাঞ্চল থেকে পোস্তগোলা হয়ে মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের নিচ দিয়ে আসা ব্যক্তিরা গুলিস্থানে নেমে পায়ে হেঁটে জিরো পয়েন্ট- দোয়েল চত্বর হয়ে অনুষ্ঠানস্থলে গমন করবেন এবং তাদের বাসসমূহ মতিঝিল/গুলিস্থান এলাকায় পার্কিং করবে। যারা মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের ওপর দিয়ে চাঁনখারপুল হয়ে আসবেন, তারা চাঁনখারপুল নেমে পায়ে হেঁটে দোয়েল চত্বর হয়ে উদ্যানের বিভিন্ন গেট দিয়ে অনুষ্ঠানস্থলে প্রবেশ করবেন এবং তাদের বাসগুলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জিমনেশিয়াম মাঠে পার্কিং করবে।

বাবুবাজার ব্রিজ হয়ে আগতরা গোলাপশাহ্ মাজারে নেমে পায়ে হেঁটে হাইকোর্ট-দোয়েল চত্বর হয়ে উদ্যানের বিভিন্ন গেট দিয়ে অনুষ্ঠানস্থলে প্রবেশ করবেন এবং তাদের বাসগুলো গুলিস্থান এলাকায় পার্কিং করবে।

এজন্য সর্বসাধারণকে অনুষ্ঠানস্থল এবং এর আশে-পাশের এলাকা দিয়ে ভারী-হালকা যানবাহনসহ গমনাগমন পরিহার করার অনুরোধ জানানো হয় ডিএমপির তরফ থেকে। পাশাপাশি অনুষ্ঠানস্থলে আগতদের কোনো প্রকার হ্যান্ডব্যাগ, ট্রলি ব্যাগ, দাহ্য পদার্থ বা ধারালো কোনো বস্তু বহন না করা এবং কর্তব্যরত আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সহযোগিতা করার জন্যও অনুরোধ জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৭, ২০১৯
পিএম/এইচএ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14