ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আষাঢ় ১৪২৬, ২৫ জুন ২০১৯
bangla news

নবাবগঞ্জে স্ত্রীকে গলাকেটে হত্যা

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০১-১৫ ১২:৩২:০৩ পিএম
প্রতীকী

প্রতীকী

নবাবগঞ্জ (ঢাকা): ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলায় পারুল আক্তার (৩৫) নামে এক নারীকে গলাগেটে হত্যা করেছেন তার স্বামী আক্কাস।

মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় উপজেলার দিঘিরপাড় সাত ঘরহাটি এলাকার আব্দুল আজিজের ভাড়া বাসা থেকে পারুলের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সকাল থেকে আক্কাসকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

আক্কাস উপজেলার বাহ্রা ইউনিয়নের মৃত গুনাই ফকিরের ছেলে। তিনি স্ত্রী ও ছেলে পারভেজকে (১০) নিয়ে ওই গ্রামের প্রবাসী আব্দুল আজিজের বাড়িতে ভাড়া থাকেন। 

নিহতের ছেলে পারভেজ বাংলানিউজকে জানায়, সে সোমবার সন্ধ্যায় একই গ্রামে নানার বাড়িতে ঘুমাতে গিয়েছিল। সকাল ৮টার দিকে বাসায় ফিরে ঘরের দরজায় শিকল দেওয়া দেখতে পায়। শিকল সরিয়ে ঘরে ঢুকে মায়ের গলাকাটা মরদেহ দেখে পারভেজ চিৎকার করলে স্থানীয়রা ছুটে আসে। পরে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়।
 
পারভেজের ভাষ্য, বাবা-মায়ের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া হতো। আর ঝগড়ার সময় প্রায়ই মায়ের গলাটিপে ধরতেন বাবা। বাবাই মাকে হত্যা করেছেন।

নবাবগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবুল হোসেন বাংলানিউজকে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। 

তিনি আরও জানান, পলাতক আক্কাসকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

বাংলাদেশ সময়: ১২২৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৫, ২০১৯
এসআই

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   হত্যা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-01-15 12:32:03