ঢাকা, সোমবার, ১১ চৈত্র ১৪২৫, ২৫ মার্চ ২০১৯
bangla news

নির্বাচনের পরে আন্দোলনে নামবে পরিবহন শ্রমিকরা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১১-২০ ২:৩৩:৫৮ এএম
পরিবহন ধর্মঘট।

পরিবহন ধর্মঘট।

ঢাকা: চলতি বছরের অক্টোবর মাসে ৮ দফা দাবিতে পরিবহন শ্রমিকরা ৪৮ ঘণ্টার ধর্মঘটের পর ২১ দিনের আল্টিমেটাম দিয়ে ৯৬ ঘণ্টার ধর্মঘটের হুমকি দিয়েছিল। কিন্তু আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ধর্মঘট থেকে সরে এসেছিল তারা। তবে আবার একই দাবি নিয়ে নির্বাচনের পর ধর্মঘট দিয়ে আন্দোলনে নামার কথা জানিয়েছে পরিবহন শ্রমিক নেতারা।

সোমবার (১৯ নভেম্বর) রাতে নির্বাচনের পরে একই ধরনের দাবি নিয়ে মাঠে নামা হবে বলে বাংলানিউজকে জানিয়েছেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী।

তিনি বলেন, বর্তমানে দাবি আদায়ের জন্য বিভিন্ন ধরনের সভা-মিটিং করছেন তারা।

ওসমান আলী বলেন, ৮ দফার কাজ চলছে। ৮ দফার পক্ষে আমাদের অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছি। তবে নির্বাচনের আগে আমরা কোনো ধর্মঘটে যাবো না। নির্বাচনের পরে যে সরকারই ক্ষমতায় আসুক না কেন, আমরা মাঠে নামবো। তবে ৮ দফার মধ্যে অনেক দফার বাস্তবায়নের কাজ চলছে।
 
এর আগে গত ৭ অক্টোবর জাতীয় সংসদে সদ্য পাস হওয়া সড়ক পরিবহন আইন সংশোধনসহ সাত দফা দাবিতে পণ্য পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ডাকা ধর্মঘট শুরু হয়েছিল।
 
সে সময় ৯ অক্টোবর দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের সঙ্গে ঊর্ধ্বতন প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে পণ্য পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আশ্বাসে ধর্মঘট প্রত্যাহার করেছিল ট্রাক পরিবহন শ্রমিকরা।
 
কিন্তু ২৬ অক্টোবর কেরানীগঞ্জে ট্রাকচালক-শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে এক শ্রমিক নিহত হন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আবার একই দাবি নিয়ে ফুসে উঠেছিল পরিবহন শ্রমিকরা। 

পরে ২৭ অক্টোবর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের সড়ক অবরোধ করে সমাবেশে ২৮ অক্টোবর ভোর ৬টা থেকে ৪৮ ঘণ্টার ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিল সংগঠনটি। ২৯ অক্টোবর ৪৮ ঘণ্টার পরিবহন ধর্মঘট শেষ হবার পর ২১ দিনের মধ্যে দাবি না মানলে ফের ৯৬ ঘণ্টার ধর্মঘটে যাবে বলে হুমকি দিয়েছিল শ্রমিকরা।
 
বাংলাদেশ সময়: ০২৩১ ঘণ্টা, নভেম্বর ২০, ২০১৮
এমআইএস/আরবি/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14