[x]
[x]
ঢাকা, বুধবার, ৮ ফাল্গুন ১৪২৫, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
bangla news

বৃহস্পতিবার থেকে চারুকলায় নবান্ন উৎসব

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১১-১৩ ১০:০৯:০৬ পিএম
সংবাদ সম্মেলনে উৎসব উদযাপন কমিটি/ছবি: বাংলানিউজ

সংবাদ সম্মেলনে উৎসব উদযাপন কমিটি/ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইন্সটিটিউটে শুরু হচ্ছে দু’দিনব্যাপী জাতীয় নবান্ন উৎসব-১৪২৫। বাংলা ১ অগ্রহায়ণ, বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়ে এ উৎসব চলবে শুক্রবার (১৬ নভেম্বর) পর্যন্ত।

বরাবরের মতো চারুকলার বকুলতলায় নানান আয়োজনের মধ্যে দিয়ে উদযাপিত হবে এবারের নবান্ন উৎসব। মঙ্গলবার (১৩ নভেম্বর) রাজধানীর একটি হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এসব বিষয়ে জানায় জাতীয় নবান্নোৎসব উদযাপন পর্ষদ। 

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, উৎসবের প্রথম দিন সকাল ৭টা ১ মিনিট থেকে শুরু হবে এবারের আনুষ্ঠানিকতা। এবছর উৎসবের উদ্বোধন করবেন নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখবেন জাতীয় নবান্নোৎসব উদযাপন পর্ষদের চেয়ারপারসন লায়লা হাসান, আহ্বায়ক শাহরিয়ার সালাম এবং এবারের আয়োজনের পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ল্যাব এইডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. এ এম শামীম।  

এসময় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পর্ষদের আহ্বায়ক শাহরিয়ার সালাম। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চেয়ারপারসন লায়লা হাসান, কো-চেয়ারম্যান হাসিনা মমতাজ ও বাবুল বিশ্বাস, ল্যাবএইডের কর্মকর্তা সাইফুর রহমান লেনিন, পর্ষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক নাঈম হাসান সুজা, আবুল ফারাহ পলাশসহ প্রমুখ। লিখিত বক্তব্যের মাধ্যমে উৎসবের বিষয়ে বিস্তারিত জানানোর পাশাপাশি ১ অগ্রহায়ণকে ‘জাতীয় নবান্ন দিবস’ ঘোষণা এবং এ দিবসটিকে সাধারণ ছুটি ঘোষণার দাবি জানানো হয়। 

সংগঠনের নেতারা জানান, উন্নত দেশগুলোতে যেখানে রাষ্ট্রীয়ভাবে নবান্ন উৎসব আয়োজন করা হয় সেখানে বাংলাদেশ কৃষিনির্ভর দেশ হওয়া সত্ত্বেও রাষ্ট্রীয়ভাবে নবান্ন উৎসবের আয়োজন হয় না। সব সাম্প্রদায়িকতা ও জঙ্গিবাদের উত্থান ঠেকাতে বাঙালির নিজস্ব ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতিচর্চা বিশেষ করে নবান্ন উৎসব আয়োজন ও অংশগ্রহণে সর্বস্তরের মানুষের প্রতি আহবান জানানো হয় সংগঠনের পক্ষ থেকে।
 
উৎসবে সঙ্গীত, নৃত্য, আবৃত্তি, নবান্ন শোভাযাত্রা, আদিবাসী পরিবেশনাসহ বিভিন্ন পরিবেশনা থাকবে। এছাড়াও থাকবে ঢাক-ঢোলের বাদন আর মুড়ি-মুড়কি-বাতাসা ও পিঠার আয়োজন। দ্বিতীয় দিন সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত নবান্নের শিশুপ্রহর ঘোষণা করা হয়েছে। এসময়ে মঞ্চে ২২টি শিশু সংগঠনের পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হবে এবং প্রাঙ্গণে শিশুরা দিনভর নবান্নের চিত্রাঙ্কনে অংশ নেবে। 

সম্প্রতি জাতীয় নবান্নোৎসব উদ্যাপন পর্ষদের আয়োজনে শিশুদের চিত্রাঙ্কনের প্রায় চারশত ছবির দু’দিনব্যাপী উন্মুক্ত প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। আর শিশুদের অঙ্কিত ছবি নিয়ে প্রকাশিত হবে পোস্টকার্ড। দু’দিনের উৎসবে ৬৮টি সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ প্রায় এক হাজার ২০০ শিল্পীসঙ্গীত, নৃত্য, আবৃত্তিশিল্পী তাদের শিল্প পরিবেশন করবেন। 

ঢাকার বাইরে টাঙ্গাইলে সংযাত্রা এবং নড়াইলে পটগানের আয়োজনও করা হবে সংগঠনের পক্ষ থেকে। উৎসবে সার্বিক সহায়তার জন্য থাকবে স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল স্বেচ্ছাসেবী। এবারের নবান্ন উৎসব ১৪২৫ উৎসর্গ করা হবে সদ্য প্রয়াত বিশিষ্ট সাংবাদিক, কবি, কলামিস্ট ও জাতীয় নবান্নোৎসব উদযাপন পর্ষদের কো-চেয়ারম্যান শুভ রহমানের প্রতি। 
বাংলাদেশ সময়: ২২০৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৩, ২০১৮
এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache