bangla news

আশুলিয়ায় চলন্ত বাস থেকে বাবাকে ফেলে দিয়ে মেয়েকে হত্যা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১১-১০ ৩:১৭:৫৭ এএম
প্রতীকী

প্রতীকী

সাভার (ঢাকা): আশুলিয়ায় একটি চলন্ত বাস থেকে বাবাকে ফেলে দিয়ে মেয়েকে হত্যা পর মহাসড়কের পাশে মরদেহ ফেলে রেখে পালিয়ে গেছেন চালক ও তার সহযোগীরা। 

শুক্রবার (১০ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে পুলিশ আব্দুল্লাপুর-বাইপাইল মহাসড়কের মরাগাঙ্গ এলাকা থেকে মেয়েটির মরদেহ উদ্ধার করে। 

নিহতের নাম জরিনা খাতুন (৪৫)। তিনি সিরাজগঞ্জের চৌহালী এলাকার আকবর আলী মণ্ডলের মেয়ে।

নিহতের পারিবারিক সূত্র ও পুলিশ জানায়, জরিনা তার বাবাকে নিয়ে শুক্রবার দুপুরে আশুলিয়ার গাজীরচট এলাকায় মেয়ের বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে বাবাকে নিয়ে বাসে করে স্বামীর বাড়ি টাঙ্গাইলের উদ্দেশে রওনা দেন তিনি। বাসচালক, হেলপার ও সুপারভাইজারসহ কয়েকজনের সঙ্গে বাবা-মেয়ের বাকবিতণ্ডতা হয়। একপর্যায়ে বাসচালকের লোকজন তাদের দু’জনকেই মারধর করেন। পরে রাত ৮টার দিকে আশুলিয়া ব্রিজের নিচে আকবর আলীকে চলন্ত বাস থেকে ফেলে দেন চালকের লোকজন। আকবর আলী বিষয়টি পুলিশকে জানান এবং তার মেয়ের কি অবস্থা সে খবর নিতে অনুরোধ করেন। পরে টহল পুলিশের একটি দল খুঁজতে খুঁজতে পাশের মরাগাঙ্গ এলাকায় মহাসড়কের পাশে তার মেয়ের মরদেহ দেখতে পায়।

এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) জাবেদ মাসুদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় নিহতের মেয়ের জামাই নুর ইসলাম বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আটক করার চেষ্টা চলছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৩১১ ঘণ্টা, নভেম্বর ১০, ২০১৮
এসআই

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   সাভার হত্যা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2018-11-10 03:17:57