[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৭ মাঘ ১৪২৫, ২০ জানুয়ারি ২০১৯
bangla news

খিলগাঁও থেকে উদ্ধার করা মরদেহের পরিচয় মিলেছে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১১-০৯ ১১:৫১:৪৬ পিএম
প্রতীকী

প্রতীকী

ঢাকা: রাজধানীর খিলগাঁও থেকে হাত ও চোখ বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করা মরদেহটির পরিচয় মিলেছে। তার নাম সুমন খান (৪০), বাড়ি জামালপুরের দেওয়ারগঞ্জে।

শুক্রবার (৯ নভেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে খিলগাঁও নাগদারপার এলাকা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ।

খিলগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান বাংলানিউজকে জানান, নাগদারপার এলাকায় রাস্তার পাশে ঝোপের মধ্যে গামছা দিয়ে হাত ও চোখ বাঁধা অবস্থায় একটি মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তাৎক্ষণিকভাবে তার নাম পরিচয় জানা যাচ্ছিল না। পরে নিহতের ভাই পিন্টু খান ও রুবেল খান এসে মরদেহটি সুমনের বলে শনাক্ত করেন। তিনি জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার আব্দুল খালেকের ছেলে। 
নিহতের ভাইয়ের বরাত দিয়ে ওসি জানান, সুমন খান জামালপুরে কাপড়ের ব্যবসা করতেন। গত ৫ নভেম্বর তিনি মালপত্র কিনতে ঢাকা আসেন। কিছু মালপত্র কিনে আলামিন নামে একজনকে দিয়ে পাঠিয়ে দেন। ওইদিন রাত দেড়টার পর থেকে তার কোনো খোঁজ পাচ্ছিল না পরিবার। অনেক খোঁজাখুঁজির পর তার মরদেহ পাওয়া গেলো।

ওসি আরও জানান, নিহতের পেটে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, দুর্বৃত্তরা কোথাও তাকে হত্যা করে মরদেহ গুমের উদ্দেশে রাস্তার পাশের জঙ্গলে ফেলে যায়। কে বা কারা কেন তাকে হত্যা করে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ২৩৪৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৯, ২০১৮
এজেডএস/এএটি/ইএআর/এসআই

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   মরদেহ উদ্ধার
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache