ঢাকা, রবিবার, ৭ বৈশাখ ১৪২৬, ২১ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১০-২১ ২:০২:২৫ এএম
ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেন

ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেন

ঢাকা: দৈনিক আমাদের অর্থনীতির নির্বাহী সম্পাদক, কলামিস্ট ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক মাসুদা ভাট্টিকে ‘চরিত্রহীন’ বলায় ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন দেশের ৫৫ জন সংবাদ মাধ্যমের সম্পাদক ও বিশিষ্ট সাংবাদিকরা।

তারা বলেন, একাত্তর টেলিভিশনে ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনকে একটি প্রশ্ন করার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি মাসুদা ভাট্টিকে চরিত্রহীন বলে মন্তব্য করেছেন। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই। 

শনিবার (২০ অক্টোবর) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তারা এই আহ্বান জানান।  

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আমরা মনে করি, কেবলমাত্র সাংবাদিকসুলভ প্রশ্ন করায় কাউকে এরকম ক্ষিপ্ত হয়ে ‘চরিত্রহীন’ বলার এখতিয়ার কারোরই নেই। স্বাধীন সাংবাদিকতা ও উন্মুক্ত গণমাধ্যম যখন বিভিন্নভাবে আক্রান্ত তখন রাজনীতিবিদ ও আইনবিদ হিসেবে ব্যারিস্টার মঈনুলের কাছ থেকে এরকম আচরণ মোটেই গ্রহণযোগ্য নয়। এ ব্যাপারে দেশের বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার ক্ষুব্ধ মানুষের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করে আমরা নিম্নোক্ত ব্যক্তিরাও ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনের এই নিন্দনীয় আচরণে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করছি।’ 

‘আমরাও অবিলম্বে ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনের এই ঘৃণ্য বক্তব্য প্রত্যাহার করে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানাচ্ছি। এটা শুধু মাসুদা ভাট্টিকে অপমান করা হয়েছে বলে নয়, বরং ভবিষ্যতে যাতে কেউ আর এভাবে কাউকে ব্যক্তি আক্রমণ না করেন সেটা নিশ্চিত করার জন্যই অবিলম্বে তার কাছ থেকে প্রকাশ্যে একটি মার্জনা প্রার্থনা আসা প্রয়োজন। দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি এবং ভবিষ্যতে একটি সুন্দর বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সমাজের প্রতিটি স্তরে সহনশীলতা ও গণতান্ত্রিক আচরণ নিশ্চিত করাই আমাদের সব নাগরিকের লক্ষ্য।’

বিবৃতিতে যারা সম্মতি দিয়েছেন তারা হলেন- (নাম জ্যেষ্ঠতার ক্রমানুসারে নয়) ইকবাল সোবহান চৌধুরী সম্পাদক দি ডেইলি অবজারভার ও প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা, মাহফুজ আনাম সম্পাদক ডেইলি স্টার, নাঈমুল ইসলাম খান প্রধান সম্পাদক দৈনিক আমাদের নতুন সময়, মতিউর রহমান সম্পাদক দৈনিক প্রথম আলো, মুহাম্মদ শফিকুর রহমান সভাপতি জাতীয় প্রেস ক্লাব, আবুল কালাম আজাদ ব্যবস্থাপনা পরিচালক বাসস, হারুন হাবীব, সিনিয়র সাংবাদিক, মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল এডিটর ইন চিফ অ্যান্ড সিইও ইটিভি, শ্যামল দত্ত সম্পাদক দৈনিক ভোরের কাগজ, নঈম নিজাম সম্পাদক দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন, শামসুর রহমান প্রধান নির্বাহী এডিটর ইন চিফ ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশন, মোজাম্মেল বাবু প্রধান সম্পাদক একাত্তর টেলিভিশন, আবু বকর চৌধুরী, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মানবকন্ঠ, তৌফিক ইমরোজ খালেদী প্রধান সম্পাদক বিডিনিউজ২৪.কম প্রমুখ।

গত ১৬ অক্টোবর মধ্যরাতে একাত্তর টেলিভিশনের টকশোয় সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে উদ্দেশ করে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের এক মন্তব্যের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচনা সমালোচনা সৃষ্টি হয়। এর প্রতিবাদে নারীদের পক্ষ থেকে বুধবার (১৭ অক্টোবর) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনকে এজন্য ক্ষমা চেয়ে ওই বক্তব্য প্রত্যাহার করে নিতে হবে।

সর্বশেষ শনিবার (২০ অক্টোরর) সন্ধ্যায় এ ঘটনার প্রতিবাদে ও ব্যারিস্টার মইনুলকে ক্ষমা চাওয়ার দাবিতে জাতীয় জাদুঘরের সামনে মানববন্ধন করে ‘গৌরব ৭১’।

বাংলাদেশ সময়: ০২০২ ঘণ্টা, অক্টোবর ২১, ২০১৮
এমএএম/জিপি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14