[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১৮ নভেম্বর ২০১৮
bangla news

সাভারে কলেজছাত্র উদ্ধার, ৩ অপহরণকারী গ্রেফতার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১০-২০ ৪:৫৪:১১ পিএম
৩ অপহরণকারী গ্রেফতার। ছবি: বাংলানিউজ

৩ অপহরণকারী গ্রেফতার। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা (সাভার): সাভারে কলেজছাত্র শাকিল আহাম্মেদ নামে এক কলেজছাত্রকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের ঘটনায় তিন অপহরণকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় অপহৃত কলেজছাত্র ও  তার মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার ( ২০ অক্টোবর) ভোরে রাজধানীর মোহাম্মদপুর টাউনহল এলাকা থেকে তিন অপহরণকারীকে গ্রেফতার করা হয়।

এ ঘটনায় কলেজছাত্রের বাবা খোকন মিয়া বাদী হয়ে সাভার মডেল থানায় একটি মামলা (নং-৬৩) দায়ের করলে শনিবার দুপুরে সাতদিনের পুলিশ রিমান্ড চেয়ে গ্রেফতারকৃতদের আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। 

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- চাঁদপুর জেলার হাজিগঞ্জ থানার ইসলামপুর গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে আরিয়ান মাসুদ (২৪), ঠাঁকুরগাও জেলার সদর থানার কালিবাড়ী গ্রামের হায়দার আলীর ছেলে আরমান শাহরিয়ার (২২) ও ঢাকার কেরানীগঞ্জ উপজেলার আটিবাজার গ্রামের মৃত শামসুল আলমের ছেলে সাজ্জাদ হোসেন রাব্বি (২১)। এছাড়াও লক্ষ্মীপুর জেলার রামগতি থানার চর হাসান হোসেন গ্রামের ফারুকুল ইলামের ছেলে অপহরণকারী তানজিরুল ইসলাম শুভসহ (২৫) আরও দু’জন পলাতক রয়েছে।

উদ্ধার হওয়া কলেজছাত্র শাকিল আহাম্মেদ (১৯) বিরুলিয়া ইউনিয়নের কাকাবো গ্রামের বাদী খোকন মিয়ার ছেলে। শাকিল ঢাকা কমার্স কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মামলার বাদী খোকন মিয়া বাংলানিউজকে জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে (১৮ অক্টোবর) প্রতিবেশী মাসুদের সঙ্গে মোটরসাইকেলে করে বিরুলিয়া ব্রিজের কাছে ঘুরতে যায় শাকিল। পরবর্তীতে বিকেল সাড়ে ৫টায় তার মোবাইল ফোনে কল দিলে অন্যলোক মোবাইল রিসিভ করেন। এ সময় আমার ছেলেকে মারধর করার শব্দ শুনতে পাই। তখন আমার ছেলের মুক্তির জন্য এক লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা। না দিলে তাকে হত্যা করে মরদেহ গুম করে ফেলার হুমকি দেয়। তাদের কথামতো ওইদিন রাতে ধাপে ধাপে এক লাখ টাকা মুক্তিপণ দেওয়ার পরও আমার ছেলেকে না ছাড়িয়া তাহার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি বন্ধ করে দেয়। পরে ঘটনাটি স্থানীয় বিরুলিয়া পুলিশ ফাঁড়িতে জানানো হলে শনিবার ভোরে শাকিলকে উদ্ধারসহ তিন অপহরণকারীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এ ব্যাপারে সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আজগর আলী বাংলানিউজকে জানান, অপহৃতের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার করে প্রথমে মুক্তিপণের টাকা পাঠানো নাম্বারের বিকাশ এজেন্ট ঢাকার মোহাম্মদপুর টাউনহল এলাকার বাসিন্দা মনির হোসেনকে শনাক্ত করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী অপহরণকারী আরিয়ান মাসুদকে আটক করা হয়।

এরপর তাকে জিজ্ঞাবাসাদে তথ্য অনুযায়ী আরমান শাহরিয়ার ও সাজ্জাদ হোসেনকে আটক করে জানা যায়, অপহৃত শাকিল আহাম্মেদকে মিরপুর রূপনগর এলাকায় তাদের বন্ধু তানজিরুলের বাসায় আটকে রাখা হয়েছে। কিন্তু সেখানে গিয়ে তাদের পাওয়া যায়নি। পরে ভোরে মিরপুর সনি সিনেমা হলের সামনে শাকিলকে ছেড়ে দিয়ে পালিয়ে যায় অপহরণকারী।

এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃত অপহরণকারীসহ চারজনের নামোল্লেখ করে অজ্ঞাতপরিচয় দু’জনের বিরুদ্ধে সাভার মডেল থানায় একটি মামলা (নং-৬৩) দায়ের করে সাতদিনের পুলিশ রিমান্ড চেয়ে আসামিদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫১ ঘণ্টা, অক্টোবর ২০, ২০১৮
এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   সাভার অপহরণ গ্রেফতার
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache