[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৬ কার্তিক ১৪২৫, ২১ অক্টোবর ২০১৮
bangla news

টেকনাফে পর্যটনে নতুন সম্ভাবনা ট্রানজিট জেটি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১০-১১ ৮:২৩:১৬ পিএম
ট্রানজিট জেটির উদ্বোধন

ট্রানজিট জেটির উদ্বোধন

কক্সবাজার: টেকনাফের পৌরসভার চৌধুরী পাড়ায় নাফ নদীর তীরে নির্মিত ৫৫০ মিটার দীর্ঘ ট্রানজিট জেটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১১ অক্টোবর) বেলা ১১টার দিকে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে জেটিটির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

স্থানীয়রা বলছেন, জেটিটি উদ্বোধনের মধ্যদিয়ে টেকনাফের পর্যটন শিল্পে সুবিধা বাড়ার পাশাপাশি একটি নতুন পর্যটন সম্ভাবনা তৈরি হলো। 

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, সেন্টমার্টিনে পযর্টকবাহী জাহাজ চলাচল এবং মিয়ানমারের সঙ্গে বাণিজ্য সুবিধা বাড়ানোর লক্ষে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি) প্রায় ৩১ কোটি ৭৫ লাখ টাকা ব্যয়ে জেটিটি নির্মাণ করে। এ জেটিতে বিশ্রামাগার, শৌচাগার ও সাতটি সিঁড়ি রয়েছে। 

এছাড়াও জেটি ব্যবহারকারীদের সুবিধার্থে জেটিটির সম্মুখভাগে ৯০ মিটার দৈর্ঘ্য ও ৬০ মিটার প্রস্থের গাড়ি পার্কিং স্পট রাখা হয়েছে। মেসার্স উন্নয়ন ইন্টারন্যাশনাল নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এ প্রকল্পের কাজ বাস্তবায়ন করে।

টেকনাফ ২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল আছাদুদ-জামান চৌধুরী বাংলানিউজকে জানান, রোহিঙ্গা সমস্যার কারণে গত দেড়বছর ধরে ট্রানজিট বন্ধ রয়েছে। তবে কখন থেকে ট্রানজিট চালু হবে এরকম কোনো নির্দেশনা এখনও পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। 

ট্রানজিট চালু হলে এ জেটির কারণে দু’দেশের মানুষের জন্য চলাচলে অনেক সুবিধা বাড়বে বলে জানান তিনি।

জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. কামাল হোসেন বলেন, জেটিটি ইতোমধ্যেই পর্যটকদের কাছে পরিচিতি লাভ করেছে। দৃষ্টিনন্দন এ জেটিতে পর্যটক এবং স্থানীয় লোকজনের আনাগোনা এখন চোখে পড়ার মতো। 

তিনি বলেন, ট্রানজিট চালু হলে দু’দেশের লোকজনের পারাপারের সুবিধা তো আছেই, পাশাপাশি টেকনাফে নতুন একটি বিনোদনের ক্ষেত্র তৈরি হলো।
 
কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের সন্মেলন কক্ষে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, উখিয়া-টেকনাফের সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদি, আশেক উল্লাহ রফিক,কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল (অব.) ফোরকার আহমেদ, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. কামাল হোসেন, জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) এবিএম মাসুদ হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভা মেয়র মুজিবুর রহমানসহ বিভিন্ন দফতরের কর্মকরতারা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০২০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১১, ২০১৮
এসআরএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache