[x]
[x]
ঢাকা, সোমবার, ৭ কার্তিক ১৪২৫, ২২ অক্টোবর ২০১৮
bangla news

গ্রাম-জাগরণ দেখতে ভোলায় যাবেন সুরেশ প্রভু

রহমান মাসুদ, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৯-২৪ ৯:৫১:০৫ পিএম
তোফায়েল আহমেদ ও সুরেশ প্রভু

তোফায়েল আহমেদ ও সুরেশ প্রভু

ঢাকা: নদীমাতৃক বাংলাদেশের কথা শুনেছেন বহুবার। শুনেছেন বাংলাদেশের গ্রামের অপরূপ রূপের কথাও। গ্রামীণ মানুষের সহজ-সরল আতিথেয়তার কথাও শুনেছেন পরিচিতজনদের কাছে। তবে গত কয়েক বছরে বর্তমান সরকারের নানামুখী উন্নয়ন কার্যক্রমে গ্রামীণ অর্থনীতি যে আমূল পাল্টে গেছে, সেই বিষয়টিই তাকে টেনেছে সবচেয়ে বেশি।

বলছিলাম ভারতের বাণিজ্যমন্ত্রী সুরেশ প্রভুর কথা। বাংলাদেশের গ্রাম যে, এখন আর দারিদ্র্যে কষাঘাতে পীড়িত দুস্থ মানুষের গ্রাম নেই; সে কথা জানেন সুরেশ প্রভুও। বিশ্বব্যাপী যেসব সভা-সেমিনারে যান সেখানেই শোনেন বাংলাদেশের গ্রামীণ জনপদের জেগে ওঠার কথা। আর তাই সুরেশ প্রভুর লোভ হয়েছে সশরীরে হাজির হয়ে গ্রাম দেখার। গ্রামের মানুষের মুখে শুনতে চান—সেই জাগরণের গল্প।

সম্প্রতি ভিয়েতনামে ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামে সাক্ষাতের সময় বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের কাছে নিজের আগ্রহের কথা জানিয়েছিলেন ভারতের বাণিজ্যমন্ত্রী সুরেশ প্রভু। তাই বাংলাদেশে পাঁচ দিনব্যাপী সফরের শুরুর দিনেই সোমবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সেই ইচ্ছাপূরণের আবদার ধরেন তোফায়েল আহমেদের কাছে।

খুশি মনেই ভারতীয় বাণিজ্যমন্ত্রীর আগ্রহে সাড়া দিয়েছেন বাংলাদেশের বাণিজ্যমন্ত্রী। সুরেশ প্রভুকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন নিজের গ্রাম কেড়ালিয়া সফরের। ১৯৪৩ সালের ২২ অক্টোবর ভোলার এই কোড়ালিয়া গ্রামেই জন্মেছিলেন তোফায়েল আহমেদ। তার পিতা মৌলভী আজহার আলী ও মা ফাতেমা বেগম। ১৯৬০ সালে ভোলা সরকারি হাইস্কুল থেকেই তিনি ম্যাট্রিক পাস করেন।
 
ভারতীয় বাণিজ্যমন্ত্রীর বাংলাদেশ গ্রাম দেখার আগ্রহ প্রসঙ্গে তোফায়েল আহমেদ বাংলানিউজকে বলেন, সুরেশ প্রভু বাংলাদেশের গ্রাম দেখতে খুবই আগ্রহী। তিনি হ্যানয়ে আমার কাছে আবদার করেন- বাংলাদেশ সফরের সময় যেন তাকে একটি গ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়।

‘আমি তাকে বল্লাম, যেহেতু গ্রাম দেখতেই চাও, তাহলে আমার গ্রামে চলো’- বলছিলেন তোফায়েল আহমেদ।

বাণিজ্যমন্ত্রী আরো বলেন, আমি আমার গ্রামে অনেক কিছু করেছি। এখন তো সেই গ্রাম আর নেই। আগে গ্রামের মানুষ খালি পায়ে হাঁটতো। মাটির ঘর ছিলো, কুঁড়েঘর ছিলো। এখন সব ঘরই টিনের। ইটের দালান হয়েছে। মানুষ বাজারে দোকানে বসে রঙিন টিভিতে খবর দেখে, সিনেমা দেখে। পায়ের ওপর পা তুলে চা খায়। গ্রামের অর্থনীতি সক্রিয় হয়েছে। চোখ জুড়িয়ে যায়।

মঙ্গলবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টার দিকে ভারতীয় বাণিজ্যমন্ত্রী সুরেশ প্রভু হেলিকপ্টারে করে তোফায়েল আহমেদের সঙ্গে ভোলায় যাবেন। সেখানে গ্রাম ঘুরে দেখবেন, মানুষের সঙ্গে কথা বলবেন। দুপুরে একসঙ্গে খাবার খাবেন। এরপর বিকেলে ফিরে আসবেন ঢাকায়। সন্ধ্যায় হোটেল সোনারগাঁওয়ে যোগ দেবেন দুই দেশের বাণিজ্য সম্মেলন ও ডিনার পার্টিতে।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৮ 
আরএম/এমজেএফ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache