[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৪ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
bangla news

জেল-জরিমানার বিধান রেখে সার বিল পাস

বাংলানিউজ টিম | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৯-১৬ ৯:২৭:১৪ পিএম
জাতীয় সংসদ ভবন

জাতীয় সংসদ ভবন

জাতীয় সংসদ ভবন থেকে: নিবন্ধন ছাড়া সার উৎপাদন, আমদানি, সংরক্ষণ, বিতরণ, পরিবহন ও বিক্রি করলে তা অপরাধ হিসেবে গণ্য করে এবং এর জন্য বিদ্যমান আইনের সাজা বাড়িয়ে ২ বছরের কারাদণ্ড ও ৫ লাখ টাকার জরিমানার বিধান রেখে জাতীয় সংসদে বিল পাস করা হয়েছে।

রোববার (১৬ সেপ্টেম্বর) কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী ‘সার (ব্যবস্থাপনা) (সংশোধন) বিল-২০১৮’ নামের এ বিলটি পাসের প্রস্তাব উত্থাপন করলে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়।

২০০৬ সালে এ সংক্রান্ত আইন সংশোধনী এনে গত ১০ জুলাই বিলটি সংসদে উত্থাপন করা হয়। বিলে নিবন্ধন ছাড়া সার উৎপাদন, আমদানি, সংরক্ষণ, বিতরণ, বিপণন, পরিবহন বা বিক্রি করলে ২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড বা অনধিক ৫ লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ডের প্রস্তাব করা হয়েছে। ২০০৬ সালের বিদ্যমান আইনে এই অপরাধের জন্য ছয় মাসের সশ্রম কারাদণ্ড বা অনূর্ধ্ব ৩০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডের বিধান রয়েছে।

প্রস্তাবিত আইনে বলা হয়েছে, এই অপরাধে কোনো রায়ে কেউ সংক্ষুব্ধ হলে ৩০ দিনের মধ্যে আদেশ পুনর্বিবেচনার জন্য আপিল করতে পারবেন। কর্তৃপক্ষ তা ১০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তি করবে। অপরদিকে মিথ্যা মামলা করলে বা কেউ মিথ্যা মামলায় বাধ্য করালে উভয়ে একই সাজা পাবেন। প্রস্তাবিত আইনে জাতীয় সার প্রমিতকরণ কমিটির সদস্য সংখ্যা দু’জন বাড়িয়ে ১৭ জন করা হয়েছে।

পাসকৃত বিলেও মিথ্যা মামলা দায়ের করলে এবং তদন্তে তা প্রমাণিত হলে মামলা দায়েরকারী ব্যক্তি নির্ধারিত দণ্ডের সমপরিমাণ দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। 

বাংলাদেশ সময়: ২১২৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৮ 
এসকে/এসএম/জেডএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   সংসদ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache