bangla news

‘জাতীয় নির্বাচনে ইভিএমের ব্যবহার থাকবে সীমিত আকারে’ 

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৯-১১ ৪:১৬:০৫ পিএম
সাংবাদিকদের ব্রিফ করছেন আ হ ম মুস্তফা কামাল। ছবি: বাংলানিউজ

সাংবাদিকদের ব্রিফ করছেন আ হ ম মুস্তফা কামাল। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়াকে স্বচ্ছ, ত্রুটিমুক্ত, বিশ্বাসযোগ্য ও আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর করতে দেড় লাখ ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) কিনতে পরিকল্পনা কমিশনে প্রকল্পের প্রস্তাব পাঠিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

ইভিএম ক্রয়, সংরক্ষণ ও ব্যবহার প্রকল্পটি আগামী ১৮ সেপ্টেম্বর (মঙ্গলবার) একনেক সভায় উপস্থাপন করা হবে। এ নিয়ে মঙ্গলবার (১১ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে একনেক সভা শেষে পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। 

আরও পড়ুন>>
**
মাদ্রাসা ভবন নির্মাণে ৫৯১৮ কোটি টাকার প্রকল্প

তিনি বলেন, আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে সীমিত আকারে ইভিএম ব্যবহার করা হবে। সেই লক্ষ্য নিয়ে প্রকল্পটি একনেক সভায় তোলা হবে অনুমোদনের জন্য। আমাদের এক দিন না একদিন ইভিএম এ যেতে হবে। এটা মেকানিক্যাল ব্যাপার তাই সবার ট্রেনিং দরকার। সেজন্য জাতীয় নির্বাচনে সীমিত আকারে ইভিএম ব্যবহার করা হবে। তবে এ বিষয়ে আমি বলার কেউ নই, ইসিই সিদ্ধান্ত নেবে। 
 
জানা যায়, ইভিএম বাস্তবায়ন প্রকল্পে প্রস্তাবিত ব্যয় ধরা হয়েছে ৩ হাজার ৮২১ কোটি ৭ লাখ টাকা। এর মধ্যে দেড় লাখ ইভিএম, সিস্টেম এবং সংশ্লিষ্ট যন্ত্রপাতির কেনার জন্য ৩ হাজার ৫১৫ কোটি ৬১ লাখ টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে। ফলে প্রতি ইউনিট ইভিএমের দাম পড়ছে প্রায় দুই লাখ টাকা করে। 
 
পরিকল্পনা কমিশন সূত্র জানায়, মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত একনেক সভায় প্রকল্পটি উপস্থাপন করা হয়নি। বর্তমান সরকারের মেয়াদে আগামী ১৮ সেপ্টেম্বর শেষ একনেক সভা হবে। 

ওই সভায় প্রকল্পটি উপস্থাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনা মন্ত্রী।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৮
এমআইএস/এমএ 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ইভিএম একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2018-09-11 16:16:05