ঢাকা, শুক্রবার, ১০ আশ্বিন ১৪২৭, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ সফর ১৪৪২

জাতীয়

নদী ঘুরে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করলেন শ্রিংলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৪২৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৮
নদী ঘুরে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করলেন শ্রিংলা প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করেছেন বাংলাদেশ নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা

বরিশাল: বরিশালের নদী ও নদী তীরের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করেছেন বাংলাদেশ নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা।

রোববার (৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বরিশাল নদীবন্দর থেকে এমভি দোয়েল নামে দোতলা লঞ্চে মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার পাতারহাট ঘাটে যাওয়ার সময় প্রাকৃতির সৌন্দর্য দেখে মুগ্ধ হয়ে যান তিনি।  

এসময় তিনি নদীতে জলের স্রোতধারা, নদীর দুই তীরের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ও নদীতে জেলেদের ইলিশ ধরার দৃশ্য দেখেন।

পাশাপাশি জেলেদের জালে ধরা পড়া ইলিশ হাতে নিয়ে উচ্ছ্বাসও প্রকাশ করেন।

পরে পাতারহাট লঞ্চঘাটে নেমে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এক মতবিনিময় সভায় যোগ দেন হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা।
জেলেদের জালে ধরা পড়া ইলিশ হাতে নিয়ে উচ্ছ্বাসিত ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা
এসময় তার সঙ্গে বরিশাল-৪ আসনের সংসদ সদস্য পংকজ নাথ, শেরে বাংলা একে ফজলুল হকের নাতি ফাইয়াজুল হক রাজু, ভারতীয় হাইকমিশনের ফাস্ট সেক্রেটারি রাজেশ উইকে, নবনীতা চক্রবর্তী, মিডিয়া এটাসে রঞ্জন মন্ডলসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সভা শেষে লঞ্চযোগে মেহেন্দিগঞ্জ থেকে বরিশাল নদী বন্দরের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন তিনি। ওইসময় হাইকমিশন রাতে নদীর সৌন্দর্য উপভোগ করেন।

এরআগে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেছেন, ‘আমরা (ভারত) মিয়ানমারকে বলেছি রাখাইনের বাস্তুহারা রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিয়ে যেতে হবে। রাখাইনে সোস্যাল ইকোনোমিক ডেভেলপমেন্টে আমাদের (ভারত) কন্ট্রিবিউশন রয়েছে। রাখাইন রাজ্যে গৃহ নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। ’ 

তিনি বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিয়ানমার গিয়েছিলেন, তিনি গৃহ নির্মাণের কাজ দেখেছেন। অনতিবিলম্বে মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে শুরু করবে বলে আশা প্রকাশ করেন শ্রিংলা।

ভারতীয় হাইকমিশনার আরও বলেন, ‘বাংলাদেশের আগামী নির্বাচন এবং রাজনীতি একান্তই তাদের নিজস্ব বিষয়। ভারত সরকার বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ রাজনীতি এবং নির্বাচনে কোনোভাবেই হস্তক্ষেপ করবে না। তবে বন্ধুপ্রতিম দেশ হিসেবে বাংলাদেশ কোনো সহযোগিতা চাইলে ভারত সরকার সব সময় তা করতে প্রস্তুত রয়েছে। ’

পাশাপাশি বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক চিরদিন অটুট থাকবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন শ্রিংলা।

এদিকে রোববার দিনভর বরিশালের বিভিন্ন এলাকায় সফর করেন তিনি। সেসময় তিনি বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার শতীন্দ্র স্মৃতি গান্ধী আশ্রম, বানারীপাড়া উপজেলার শেরে বাংলা জাদুঘর, পিরোজপুরের নেছারাবাদে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ কলেজ এবং আটঘর-কুড়িয়ানার ভাসমান কৃষি ও পেয়ারার বাগান ঘুরে দেখেন।

বাংলাদেশ সময়: ০০২৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৮
এমএস/জিপি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa