ঢাকা, বুধবার, ৮ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ সফর ১৪৪২

জাতীয়

‌‘আকাশবীণা’র উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৮
‌‘আকাশবীণা’র উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বিমানের নতুন অত্যাধুনিক উড়োজাহাজ আকাশবীণা উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। ছবি: পিআইডি

ঢাকা: বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত হওয়া অত্যাধুনিক বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার ‌'আকাশবীণা'র উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার (০৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ভিভিআইপি টার্মিনালে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এ উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধন শেষে প্রধানমন্ত্রীর সামনে উড়োজাহাজটির একটি মডেল উপস্থাপন করা হয়। পরে বিমান বহরে যুক্ত নতুন এই উড়োজাহাজটি পরিদর্শন করেন তিনি।

আরো পড়ুন>>
**
গণতন্ত্র সুপ্রতিষ্ঠিত: প্রধানমন্ত্রী

এ সময় বেসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল, বিমানের এমডি ও প্রধান নির্বাহী (সিইও) এএম মোসাদ্দিক আহমেদসহ মন্ত্রিপরিষদ সদস্য, সংসদ সদস্য, বাহিনী প্রধান, বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূতসহ বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকরা উপস্থিত ছিলেন।

বিমানের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ জানান, সন্ধ্যার দিকে ড্রিমলাইনারের প্রথম বাণিজ্যিক ফ্লাইট পরিচালিত হবে। ফ্লাইটটি ঢাকা থেকে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে।  

এর আগে গত ১৯ আগস্ট বিকেলে ঢাকায় এসে পৌঁছায় আমেরিকার বোয়িং কোম্পানির তৈরি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার। যুক্তরাষ্ট্রের সিয়াটল পেনফিল্ড থেকে যাত্রাবিরতি ছাড়াই টানা সাড়ে ১৪ ঘণ্টা উড়ে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে উড়োজাহাজটি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর নাম দিয়েছেন ‘আকাশবীণা’। বোয়িংয়ের কাছ থেকে আরও তিনটি ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার বিমানবহরে যোগ হতে যাচ্ছে। দ্বিতীয়টি আসবে আগামী নভেম্বরে। অন্য দুটি আসবে ২০১৯ সালের শেষ দিকে।

গত ২৯ আগস্ট দুপুরে ড্রিমলাইনারের প্রথম পরীক্ষামূলক ফ্লাইট ঢাকা থেকে কলকাতায় চালানো হয়। বিমানের সিনিয়র পাইলট ক্যাপ্টেন ফজল আহমেদ ও বোয়িংয়ের ক্যাপ্টেন রিচার্ড এম ডেনটন ফ্লাইটটি পরিচালনা করেন। ওই ফ্লাইটে বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয়, সিভিল অ্যাভিয়েশন অথরিটি, বিমান কর্মকর্তাসহ ২৯ জন আরোহী ছিলেন।  

বিমান সূত্র বলছে, ড্রিমলাইনার দিয়ে মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুরে ফ্লাইট চালানো হবে। কর ও চার্জ ছাড়া ঢাকা-সিঙ্গাপুর-ঢাকা রুটে ইকোনমি ক্লাসের ভাড়া ২০০ মার্কিন ডলার। এ ছাড়া ঢাকা-কুয়ালালামপুর-ঢাকা রুটে ইকোনমি ক্লাসের ভাড়া ২৯০ মার্কিন ডলার।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০৫, ২০১৮
এমইউএম/এমএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa