bangla news

বেপরোয়া এনা পরিবহন একদিনে কেড়ে নিল ৫ প্রাণ

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৮-২৯ ৫:৪৩:১৩ এএম
সরাইলে খাদে পড়ে গেছে এনা পরিবহনের একটি বাস। ছবি: বাংলানিউজ

সরাইলে খাদে পড়ে গেছে এনা পরিবহনের একটি বাস। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: বেপরোয়া এনা পরিবহনের বাস একদিনে কেড়ে নিয়েছে পাঁচটি প্রাণ। বুধবার (২৯ আগস্ট) সকালে নরসিংদীর শিবপুরে এবং দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে এনা পরিবহনের দুই বাসের চাপায় এ প্রাণহানি ঘটে। বাংলানিউজের ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্টদের পাঠানো রিপোর্ট:

নরসিংদী: সকাল ১১টার দিকে শিবপুর উপজেলার আমতলায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে এনা পরিবহনের বাসের চাপায় মোটরসাইকেলের দুই আরোহীর মৃত্যু হয়। 

নিহতরা হলেন- গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া এলাকার খিরাটি গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে মেহেদী হাসান (২৫) ও কফিলউদ্দিনের ছেলে রোমান (২৪)। 

পুলিশ জানায়, এনা পরিবহনের একটি বাস ঢাকা থেকে সিলেট যাচ্ছিল। গাড়িটি পথে আমতলা নামক স্থানে এসে বিপরীত দিক থেকে আসা দুই আরোহীসহ একটি মোটরসাইকেলকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেলের চালক মারা যান। এসময় আহত হন অপর আরোহী। এ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। 

এদিকে, ঘটনার পরপরই উত্তেজিত জনতা সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে বাস ভাঙচুরের চেষ্টা করেন। পরে সৃষ্টিগড় থেকে এনা পরিবহনের বাসটি আটক করে হাইওয়ে পুলিশ।

ইটাখোলা হাইওয়ে ফাঁড়ির ইনচার্জ (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান বলেন, এনা পরিবহনের বাসটি আরেকটি গাড়িকে ওভারটেক করার সময় মোটরসাইকেলটিকে চাপা দেয়। নিহতদের মরদেহ নরসিংদী সদর হাসপাতাল ময়নাতদন্তের পর পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: দুপুর দেড়টার দিকে সরাইল উপজেলার বৈশ্বামুড়া এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে এনা পরিবহনের আরেকটি বাস খাদে পড়ে তিনজন নিহত হন। এ ঘটনায় আহত হন আরও ২০ জন।

নিহতরা হলেন- বাসের যাত্রী রোবিনা নূর (৫০), তার মেয়ে সাবিনা নূর (৩২),  ইয়াছিন (৭ মাস)। তাদের বাড়ি মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল ও ময়মনসিংহে  বলে জানায় পুলিশ। 

এ ঘটনায় আহতরা হলেন, বাবুল (৩০), সাকির (২৮),  হাফিজ (৫০), মনোয়ারা (৫০) ফয়সাল (১৬), রেহেনা (৩০), রাশেদ (২৮), হোসেন (৪০), গিয়াস (৩৬), বাবুল (৬৪), সালাউদ্দিন (৬৫),  জাহাঙ্গীর (২৬), সুমন (৩০), খায়ের (১০) বাকিদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

এনা পরিবহনের যাত্রী বাবুল ও সুমন বাংলানিউজকে জানান, ‘যখন ঢাকা থেকে সিলেটের উদ্দেশে বাসটিতে উঠি তখন থেকে চালক বাসটি দ্রুত গতিতে চালাতে থাকেন। নরসিংদী জেলা আসার পর এনা পরিবহনের অপর একটি বাস দুই মোটরসাইকেল চাপা দিলে ঘটনাস্থলে দু’জন মারা যান। তখন ঘণ্টা খানেক আটক থাকার পর পুনরায় বাস ছাড়লে তখন চালকের গতি আরও বেড়ে যায়। এসময় বাসের সব যাত্রীরা বার বার অনুরোধ করলে চালক কারো কথা শোনেননি। আর এ বেপরোয়া গতির কারণে ব্রেক ধরতে গিয়ে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়।’

খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হোসেন সরকার দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে বলেন, দুপুরে সিলেটগামী এনা পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বৈশ্বামুড়া এলাকায় মহাসড়কের পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজনের মৃত্যু হয়। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফায়ারসার্ভিসের উপ-পরিচালক শারফুল হাসান ভূঁইয়া বাংলানিউজকে জানান, খবর পেয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ফায়ার সার্ভিসে দু’টি ও মাধুবপুরের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে বাসের যাত্রীদের উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৬ ঘণ্টা, আগস্ট ২৯, ২০১৮ আপডেট সময়: ২০০০ ঘণ্টা
আরএ/জিপি/এসআই

 

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2018-08-29 05:43:13