ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ আগস্ট ২০২০, ২৩ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

বগুড়ায় নিজ বাড়ি থেকে মা-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৬১১ ঘণ্টা, আগস্ট ২১, ২০১৮
বগুড়ায় নিজ বাড়ি থেকে মা-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার রুবি ও তার মেয়ে সুমাইয়ার নিথর দেহ। ছবি: বাংলানিউজ

বগুড়া: বগুড়া শহরের বাণিজ্যিক এলাকাখ্যাত বড়গোলার টিনপট্টি এলাকা থেকে মা-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২১ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে মরদেহ ময়না-তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়।

এর আগে সোমবার (২০ আগস্ট) রাতের কোনো এক সময় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন একই এলাকার সৌদি প্রবাসী ইউসুফ শেখের স্ত্রী রুবি খাতুন (২৬) ও তার ছয় বছরের শিশুকন্যা সুমাইয়া খাতুন। তবে এখনও হত্যাকাণ্ডের কারণ জানা যায়নি।

স্থানীয়রা জানান, মৃত মোসলেম শেখের ছেলে ইউসুফ শেখ প্রায় দু’বছর আগে সৌদিআরব যান। তার অন্য চার ভাই পরিবার পরিজন নিয়ে একই বাড়িতে পাশাপাশি ঘরগুলোতে বসবাস করেন।

এদিকে হত্যাকাণ্ডের খবর পেয়ে জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) আলী আশরাফ ভূঁইয়া, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী ও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম বদিউজ্জামান ঘটনাস্থলে ছুটে যান।

এছাড়া পুলিশ ইনভেস্টিগেশন ব্যুরোর (পিবিআই) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আকতার হোসেনের নেতৃত্বে অপর একটি টিমও সেখানে যান।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) সনাতন চক্রবর্তী বাংলানিউজকে জানান, নিহত রুবির শাশুড়ি জুলেখা বেওয়ার মাধ্যমে এ হত্যাকাণ্ডের খবর জানেন তারা। হত্যাকারী একজন বা একের অধিকও হতে পারে। বেশ কয়েকটি বিষয় সামনে রেখে ঘটনাটি নিবিড়ভাবে তদন্ত করা হচ্ছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন করা সম্ভব হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

পিবিআইয়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আকতার হোসেন বাংলানিউজকে জানান, মেয়েকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। মা রুবি বেগমের গলার বাম পাশে কাঁচির আঘাত করার চিহ্ন রয়েছে। তাছাড়া বিছানায় রক্তের দাগও রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১২০৯ ঘণ্টা, আগস্ট ২১, ২০১৮
এমবিএইচ/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa