bangla news

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুটে ফেরি বন্ধে বিপাকে যাত্রীরা 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৮-১৩ ৩:০৯:২২ এএম
শিমুলিয়া ঘাটে গাড়ির দীর্ঘ লাইন। ছবি: বাংলানিউজ

শিমুলিয়া ঘাটে গাড়ির দীর্ঘ লাইন। ছবি: বাংলানিউজ

মুন্সিগঞ্জ: দক্ষিণবঙ্গের ২১ জেলার প্রবেশদ্বার মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুট। গেল কয়েকদিন ধরেই নাব্যতা সংকটের কারণে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। বর্তমানে ফেরি বন্ধ থাকায় ঘাট এলাকায় ৫ শতাধিক যানবাহন পারের অপেক্ষায় রয়েছে। ভোর থেকে ফেরি বন্ধের কারণে বিপাকে পড়েছেন এ পথে যাতায়াত করা যাত্রীরা। 

সোমবার (১৩ আগস্ট) ভোর সাড়ে ৪টা থেকে ফেরি বন্ধ আছে নৌরুটে। বিকল্প চ্যানেল ও সরাসরি মূল চ্যানেলে নাব্যতা সংকট দেখা দিয়েছে। সকাল থেকে কিছু ফেরি হালকা ও যাত্রীবাহী ছোট গাড়ি নিয়ে ছেড়ে গেলেও আবার শিমুলিয়া ঘাটে ফিরে এসেছে। 

বিআইডব্লিউটিএ’র ম্যারিন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলি জানান, চ্যানেলে ৩ ফুট পানি রয়েছে, যা ফেরি চালানোর জন্য অনুপযোগী। ফেরি চালাতে সাড়ে ৭ ফুট পানির গভীরতা প্রয়োজন।  

বিআইডব্লিউটিসি’র শিমুলিয়া ঘাটের উপ-মহাব্যবস্থাপক শাহ মো. খালেদ নেওয়াজ জানান, নাব্যতা সংকটের কারণে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। ড্রেজিংয়ের মাধ্যমে নাব্যতা সংকট দূর না করা পর্যন্ত  ফেরি চালানো সম্ভব নয়।  

মাওয়া ট্রাফিক ফাঁড়ির ইন্সপেক্টর মো. সিদ্দিকুর রহমান জানান, ঘাট এলাকায় ৫ শতাধিক গাড়ি পারের অপেক্ষায় রয়েছে। রোববার পণ্যবাহী ৮০-৯০টি ট্রাক দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ঘাটের দিকে চলে গেছে। ঘাট এলাকায় আসা পণ্যবাহী গাড়িগুলোকে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ঘাট ব্যবহার করার অনুরোধ করা হচ্ছে। ফেরি চলাচল সচল না হলে গাড়ির লাইন আরো দীর্ঘ হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। 
  
বিআইডব্লিউটিএ’র ড্রেজিং বিভাগের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. সাইদুর রহমান জানান, লৌহজং ও বাইপাস চ্যানেলে ৭টি ড্রেজার পলি অপসারণে কাজ করছে। আজকের মধ্যে সরাসরি মূল চ্যানেল দিয়ে কে-টাইপ ফেরি চালানো যাবে। কিন্তু লৌহজং চ্যানেল থেকে ৩ কিলোমিটার ডাউনে থাকা বিকল্প চ্যানেলটি চলাচলের উপযোগী করতে আরো ২দিন সময় লাগবে। চ্যানেলে পলি অপসারণ করতে গিয়ে পাড়ের বালু ভেঙে পড়ায় নাব্যতা সংকট প্রকোপ আকার ধারণ করেছে। তবে শিগগির সরাসরি মূল চ্যানেল দিয়ে কে-টাইপ ফেরি চলবে বলে জানান তিনি।  

বাংলাদেশ সময়: ১৩০২ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০১৮ 
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ফেরি পারাপার মুন্সিগঞ্জ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2018-08-13 03:09:22