ঢাকা, বুধবার, ৩ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

বাংলাদেশ-মিয়ানমারের মধ্যে চালু হচ্ছে হটলাইন

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৮-১০ ১:০২:০৩ পিএম
রোহিঙ্গা শরণার্থী/ফাইল ফটো

রোহিঙ্গা শরণার্থী/ফাইল ফটো

ঢাকা: রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে একটি হটলাইন চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। হটলাইনে দু’দেশের মন্ত্রী পর্যায়ে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের জন্য আলোচনা হবে। এছাড়া রোহিঙ্গাদের ফেরাতে যে ফরম তৈরি করা হয়েছে সেটা পূরণ করতে হবে তাদের নিজেদেরই।

শুক্রবার (১০ আগস্টা) নেপিদোয় বাংলাদেশ-মিয়ানমারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর‌্যায়ের বৈঠকে এ আলোচনা হয়।

মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সেলর অফিস থেকে এক বিবৃতিতে বৈঠকের বিষয়ে জানানো হয়েছে, বাংলদেশ ও মিয়ানমারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর‌্যায়ের বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন আবুল হাসান মাহমুদ আলী। আর মিয়ানমারের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন দেশটি স্টেট কাউন্সেলর অফিসের মন্ত্রী কিয়া তিন্ত সোয়ে।

বৈঠকে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের লক্ষ্যে বিস্তারিত আলোচনা হয়। দু’দেশের মধ্যে এ বৈঠকে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে একটি হটলাইন চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এই হটলাইনে দু’দেশের মন্ত্রী পর‌্যায়ে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের জন্য আলোচনা হবে।

বৈঠকে রোহিঙ্গাদের রাখাইনে ফেরত পাঠানোর লক্ষ্যে যে ফরম তৈরি করা হয়েছে, সেটা আলোচনায় উঠে আসে। তবে এই ফরম রোহিঙ্গাদের নিজেদেরই পূরণ করতে হবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

তিনদিনের সফরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল গত ৯ আগস্ট মিয়ানমার গেছেন। এই প্রতিনিধি দলে পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুলও রয়েছেন। দু’দেশের মধ্যে বিভিন্ন পর‌্যায়ে বৈঠকের পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসন নিশ্চিত করতে রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের আবাসন সুবিধা, চলাফেরা ও জীবনযাত্রাসহ প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ার অগ্রগতিও দেখবে প্রতিনিধি দল।

বাংলাদশে সময়: ২২৫৫ ঘণ্টা, আগস্ট ১০, ২০১৮
টিআর/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2018-08-10 13:02:03