bangla news

চট্টগ্রাম-বেনাপোল রুটে গ্রীনলাইনের স্লিপার কোচ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-২১ ১০:২৭:১৬ এএম
গ্রীনলাইন পরিবহনের স্কেনিয়া কোচ। ছবি: বাংলানিউজ

গ্রীনলাইন পরিবহনের স্কেনিয়া কোচ। ছবি: বাংলানিউজ

বেনাপোল (যশোর): এবার বাংলাদেশ-ভারতে ভ্রমণকারী যাত্রীদের যাতায়াতের কথা মাথায় রেখে বেনাপোল-ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে চালু হচ্ছে অত্যাধুনিক বাস পরিষেবা। 

এ পরিষেবা চালু করেছে বাস কোম্পানি গ্রীনলাইন পরিবহন। সোমবার (২১ মে) বিকেলে গ্রীনলাইনের বাসটিকে বেনাপোল রুটে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে যাতায়াতকারী পাসপোর্ট যাত্রীদের বহন করতে দেখা যায়।

গ্রীনলাইনের স্কেনিয়া স্লিপার কোচটির চালক শাহজাহান বাংলানিউজকে জানান, বাসটিতে আসন সংখ্যা ৩০। সবগুলো আসন স্লিপার হওয়ায় তা খুবই আরামদায়ক। শুয়ে-বসে যাত্রীরা গন্তব্যে চলাচল করতে পারেন। 

বেনাপোল গ্রীনলাইন পরিবহনের ম্যানেজার রবিন্দ্রনাথ চৌধুরী বাংলানিউজকে জানান, বেনাপোল থেকে ঢাকা যাওয়ার জন্য এ বাসে যাত্রীদের ভাড়া নেওয়া হচ্ছে ১৫০০ টাকা। আর বেনাপোল থেকে চট্টগ্রামের ভাড়া ২৫০০ টাকা। 

গ্রীনলাইনের অত্যাধুনিক বাস সার্ভিস। ছবি: বাংলানিউজ ‘আপাতত এ রুটে গ্রীনলাইন পরিবহনের দু’টি স্লিপার কোচ চলাচল করছে। একটি প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টায় বেনাপোল থেকে ছেড়ে ঢাকা হয়ে চট্টগ্রামে পৌঁছায়। আবার একই সময়ে যাত্রী নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে আরও একটি বাস ফেরে বেনাপোলের উদ্দেশে।’

তিনি বলেন, যাত্রীদের সকালে নাস্তা ও দুপুরে খাওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। তা কর্তৃপক্ষই ব্যবস্থা করছেন। যাত্রীরা আগ্রহ ও সন্তোষ প্রকাশ করায় ভবিষ্যতে স্লিপার কোচের সংখ্যা বাড়ানোর চিন্তা করছেন কর্তৃপক্ষ। 

জানা যায়, গ্রীনলাইন পরিবহনের এ ধরনে বাসের সংখ্যা ৯টি। উন্নতমানের আরামদায়ক  ডাবল ডেকার ও হাইডেক  বাস রয়েছে। স্লিপার কোচের আনুমানিক মূল্য প্রায় ৩ কোটি টাকা। 

জার্মানি থেকে আমদানি করা এসব কোচ ঢাকা-সিলেট ও ঢাকা-চট্টগ্রাম-কক্সবাজার রুটে চলাচল করছে। এছাড়া ঢাকা-বরিশাল রুটেও গ্রীনলাইনের এ ধরনের যাত্রী সেবা চালু রয়েছে।

এদিকে আধুনিক বাসগুলোতে কেবল যাত্রী সেবায় আরামদায়ক  সব ব্যবস্থা থাকলেও দুর্ঘটনা এড়াতে অগ্নি-নির্বাপণ, জরুরি দরকার কিংবা নারী, বয়স্ক নাগরিক ও  প্রতিবন্ধীদের জন্য নির্ধারিত কোনো আসন রাখা হয়নি। 

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, প্রতিবেশী ভারতে মানবিক বোধ অক্ষুণ্ন রাখতে ও সচেতনেতায় বাধ্যতামূলক সব ধরনের গণপরিবহন ও ট্রেনে এসব ব্যবস্থা রাখা হয়। তাই যাত্রীদের কল্যাণে এসব পরিবহনেও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তারা। 

বাংলাদেশ সময়: ২০১৫ ঘণ্টা, মে ২১, ২০১৮
এজেডএইচ/এমএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2018-05-21 10:27:16