[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ৪ কার্তিক ১৪২৫, ১৯ অক্টোবর ২০১৮
bangla news

রোজায় কেমন থাকবে আবহাওয়া?

ইসমাইল হোসেন, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-১৭ ৬:৪১:২৯ এএম
রাজধানীতে বৃষ্টিপাত। বাংলানিউজ ফাইল ছবি

রাজধানীতে বৃষ্টিপাত। বাংলানিউজ ফাইল ছবি

বর্ষাকাল শুরুর আরো প্রায় দুই সপ্তাহ বাকি থাকলেও রমজান মাসের শুরু থেকেই মেঘ-বৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। ফলে রজমান মাসে তীব্র গরমের ভোগান্তিতে পড়তে হবে না রোজাদারদের।

শুক্রবার (১৮ মে) থেকে শুরু হচ্ছে সিয়াম সাধানার মাস রমজান। মুসলমান সম্প্রদায়ের পবিত্র এই মাস জুনের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত চললেও গ্রীষ্মকালের গরমে তেমন অস্বস্তি থাকবে না বলেই জানিয়ে আবহাওয়া অফিস।  

আবহাওয়াবিদ আবুল কালাম মল্লিক বৃহস্পতিবার বাংলানিউজকে বলেন, মে মাসের বাকি দিনগুলো প্রতিদিনই ঢাকায় হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি থাকবে। তবে বৃষ্টির ব্যাপ্তি বেশিক্ষণ স্থায়ী হবে না।

তিনি আরো বলেন, আর জুন মাসে বর্ষাকাল শুরু হয়। মাঝে মাঝে বাতাসে জলীয় বাষ্প বৃদ্ধি পেলে একটু গরম বোধ হবে। তবে জুনের প্রথম সপ্তাহে মৌসুমী বায়ু দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে বওয়া শুরু করলে সেই অস্বস্তি থাকবে না। আশা করা যায় সারা দেশে পুরো রমজানই স্বস্তিতে কাটবে।

আবহাওয়া অধিদফতরের মে মাসের দীর্ঘ মেয়াদি পূর্বাভাসে বলা হয়েছিল, এ মাসে দেশে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। বঙ্গোপসাগরে ২টি নিম্নচাপেরও সৃষ্টি হতে পারে। এরমধ্যে একটি ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে।

এছাড়া মে মাসে দেশের উত্তর থেকে মধ্যাঞ্চল পর্যন্ত ২-৩ দিন মাঝারি/তীব্র বজ্রঝড় (কালবৈশাখী) ও দেশের অন্যত্র ৩-৪ দিন হালকা/মাঝারি বজ্রঝড় (কালবৈশাখী) হতে পারে। সেই সাথে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

এ মাসে দেশের উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে একটি তাপপ্রবাহ (<৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস) এবং অন্যত্র ১-২টি মৃদ্যু (৩৬-৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস)/মাঝারি (৩৮-৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস) তাপপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে।

আর তিন মাস মেয়াদি পূর্বাভাসে দেখা যায়, জুন মাসের প্রথমার্ধে সারা দেশে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু (বর্ষাকাল) বিস্তার লাভ করতে পারে। এছাড়া স্বাভাবিক বৃষ্টিপাত হবে। আর বঙ্গোপসাগরে ১-২টি মৌসুমী নিম্নচাপের সৃষ্টি হতে পারে।

আবহাওয়ার ওপর কাজ করা আন্তর্জাতিক ওয়েবসাইটের তথ্যেও দেখা যায় রমজানে তাপমাত্রা ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের উপরে উঠবে না। এই সময়ে প্রতিদিনই মেঘলা আকাশসহ বৃষ্টি ও বজ্রবৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, পশ্চিমা লঘুচাপ বিহার ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া ও বিজলি চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে এবং বিক্ষিপ্তিভাবে শিলা বৃষ্টি হতে পারে। সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। 

পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার অবস্থায় বলা হয়, এই সমেয় বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে। 

শুক্রবার ঢাকায় সূর্যোদয় ভোর ৫টা ১৫ মিনিটে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩৫ ঘণ্টা, মে ১৭, ২০১৮
এমআইএইচ/এমজেএফ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache