[x]
[x]
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮
bangla news

৫ শতাধিক বিষধর সাপের বাচ্চা নিয়ে স্কুলে আতঙ্ক

বেলাল হোসেন, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-১৩ ৯:৪১:৪৫ পিএম
মেরে ফেলা সাপের বাচ্চা। ছবি: বাংলানিউজ

মেরে ফেলা সাপের বাচ্চা। ছবি: বাংলানিউজ

বগুড়া: স্কুলের পিয়ন অফিস রুমে ঢুকে যথারীতি অন্য দিনের মতোই সবকিছু পরিষ্কার করছিলেন। কিন্তু, হঠাৎ ঝাড়ুর মাথায় একটা সাপের বাচ্চা দেখতে পেয়ে চিৎকার করে ওঠেন তিনি। স্কুলে উপস্থিত শিক্ষকরা তার চিৎকার শুনে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে সবাই মিলে আরও সাপ খুঁজতে শুরু করেন। 

সন্ধান চালিয়ে তারা যা দেখতে পান, তা রীতিমত হইচই ফেলে দিয়েছে বগুড়ার ধুনট উপজেলায়। অফিস রুমের আলমারি ও অন্যান্য আসবাবপত্রসহ কাগজপত্রের ভেতর থেকে একে একে বেরিয়ে আসতে থাকে বিষধর সাপের বাচ্চা। 

এ সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে মুহূর্তের মধ্যে উৎসুক জনতার ভিড় জমে উঠে। এ সময় অভিভাবকদের সহযোগিতায় শিক্ষকরা ওই রুমের পাকা মেঝে খুড়ে আরও অনেকগুলো সাপের বাচ্চা বের করে আনেন। এভাবে প্রায় পাঁচ শতাধিক বিষধর সাপের বাচ্চা উদ্ধার করে তা মেরে ফেলা হয়।  

রোববার (১৩ মে) সকালে বগুড়ার ধুনট উপজেলার গোপালনগর ইউনিয়নের রান্ডিলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলার পর ঘটনাটি ঘটে। এসময় কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। সাপের ভয়ে সিংহভাগ শিক্ষার্থী স্কুল ছেড়ে বাড়ি চলে যায়। 

রোববার রাতে ধুনট উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা (এটিও) অরুণ কুমার দেবনাথ বাংলানিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

তিনি জানান, বিদ্যালয়ের অফিসে বাসা বেঁধেছে অসংখ্য বিষধর সাপ যা এতদিন কারো নজরে আসেনি। 

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পাঠদান কিছুটা বাধাপ্রাপ্ত হয়। পরে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সঙ্গে পরামর্শ অনুযায়ী সাপের দংশন থেকে নিরাপত্তা নিশ্চিত করার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। 

বাংলাদেশ সময়: ০৭৪০ ঘণ্টা, মে ১৪, ২০১৮
এমবিএইচ/এনএইচটি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa