ঢাকা, শনিবার, ৯ চৈত্র ১৪২৫, ২৩ মার্চ ২০১৯
bangla news

ফেসবুককে আমি ‘ফেকবুক’ বলি: জয়

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৪-১৫ ৪:৫৬:৫০ এএম
বিপিও সামিটে বক্তব্য রাখছেন জয়/ছবি: ডিএইচ বাদল

বিপিও সামিটে বক্তব্য রাখছেন জয়/ছবি: ডিএইচ বাদল

ঢাকা: ফেসবুককে বিপজ্জনক উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় বলেছেন, আমি এটাকে ফেকবুক বলি। এটা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়।

রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে দু’দিন বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং (বিপিও) সামিট-২০১৮ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
 
তিনি বলেন, ফেসবুক বিপজ্জনক। অনেকেই এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করেন। আমার স্ত্রী ক্রিস্টিনা একটু পরপরই ফেসবুক চেক করে। আমি এটাকে ফেকবুক বলি। এটা একটা কাল্পনিক, মিথ্যা জগৎ। এর কোনো সীমা নেই। এটা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়। ব্লক করাও সম্ভব নয়। ইন্টারনেটে কোনো কিছু ব্লক করে আটকানো যায় না। ব্লক করতে আপনারাও চাইবেন না।
 
‘ফেসবুকে অপ্রচার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ সারা দুনিয়াতেই হচ্ছে। এটা কারো দ্বারাই নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়। আমরা পদক্ষেপ নিচ্ছি। যেসব কনটেন্টের মাধ্যমে অপ্রপ্রচার চালানো হয় বা কালো তালিকাভুক্ত কনটেন্টগুলো কীভাবে ব্লক করা যায় তার জন্য প্রশিক্ষণের পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। এগুলো ব্লক করা হবে। কেননা, এসবের মাধ্যমে সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতনের উসকানি দেওয়া হয়। পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করতে উসকানি দেওয়া হয়।
 
সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, ফেসবুকে কারো মন্তব্য করা তার বাক স্বাধীনতা। কিন্তু এর মাধ্যমে উসকানি দেওয়া উচিত নয়। আমাদের সরকার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের একটি খসড়া করে ফেলেছে। এর মাধ্যমে কারো বাক স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে না। সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত, উসকানি রোধ এ আইনের উদ্দেশ্য।
 
অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ইমরান আহমেদ এমপি, বাংলাদেশ অ্যায়োসিয়েশন অব কল সেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিং (বাক্য) সভাপতি ওয়াহিদুর রহমান শরীফ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৪৫২ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৫, ২০১৮
ইইউডি/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14